অক্টোবর ৫, ২০২২
MIMS 24
এই মাত্র কোভিড ১৯ প্রিয় লেখক ব্রেকিং মু: মাহবুবুর রহমান স্বাস্থ্য

অক্সফোর্ডের করোনা টিকার অনুমোদন দিল যুক্তরাজ্য

মু: মাহবুবুর রহমান 

অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞানীদের উদ্ভাবিত নভেল করোনাভাইরাসের টিকার অনুমোদন দিয়েছে যুক্তরাজ্য। যুক্তরাজ্যের ওষুধ নিয়ন্ত্রক সংস্থা মেডিসিনস অ্যান্ড হেলথকেয়ার রেগুলেটরি এজেন্সি-এমএইচআরএ টিকাটি দেশটিতে ব্যবহারের জন্য অনুমোদন দেয় বলে আজ (৩০ ডিসেম্বর) জানিয়েছে বিবিসি।

দেশটিতে টিকাদান কর্মসূচির জন্য এই অনুমোদনকে একটি বড় পদক্ষেপ হিসেবে দেখা হচ্ছে। বিবিসি জানায়, এটি যুক্তরাজ্যের টিকাদান প্রচারে ব্যাপক প্রসার ঘটাবে, যা জীবনকে স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরিয়ে আনবে। এছাড়া, ভ্যাকসিনটি নিরাপদ এবং কার্যকর বলেও জানানো হয় ওই প্রতিবেদনে।

অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় উদ্ভাবিত করোনার টিকা উৎপাদন করছে ওষুধ প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান অ্যাস্ট্রাজেনেকা। যুক্তরাজ্য সরকার অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকার ১০ কোটি ডোজের ডোজের আগাম অর্ডার করে রেখেছে।

অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার করোনার টিকার উৎপাদনের সঙ্গে যুক্ত আছে ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউট অব ইন্ডিয়া। আর অক্সফোর্ডের ওই টিকার তিন কোটি ডোজ কিনতে ৫ই নভেম্বর  সেরাম ইনস্টিটিউট ও বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেডের সঙ্গে চুক্তি করেছে বাংলাদেশ সরকার। পরে গত ১৩ ই ডিসেম্বর ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউট, বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেডের সঙ্গে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ক্রয়চুক্তিও স্বাক্ষরিত হয়।

অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকার জরুরি ব্যবহারের অনুমোদন চেয়ে ইতিমধ্যে ভারত সরকারের কাছে আবেদন করেছে সেরাম ইনস্টিটিউট। যুক্তরাজ্য অনুমোদন দেয়ায় দ্রুতই ভারতও অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকার জরুরি ব্যবহারের অনুমোদন দেবে বলে আশা করা যায়।

যুক্তরাজ্য গত ২ ডিসেম্বর ফাইজার-বায়োএনটেকের তৈরি করোনার ভ্যাকসিন ব্যবহারের অনুমোদন দেয়। এরপর গত ৮ ডিসেম্বর থেকে দেশটিতে ফাইজারের টিকার প্রয়োগ শুরু হয়। যুক্তরাজ্যে এরই মধ্যে ৬ লক্ষ মানুষকে টিকা দেয়া হয়েছে।

তবে অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকা টিকার অনুমোদন দেয়ার ফলে টিকাদানের গতি বেশ খানিকটাই বেড়ে যাবে কারণ এই টিকাটি স্বল্পমূল্যের এবং সহজেই উৎপাদন করা যায়।

আবার অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার  টিকাটি সাধারণ ফ্রিজেই সংরক্ষণ করা যায়, যেখানে ফাইজার-বায়োএনটেকের টিকাটি সংরক্ষণ করতে হয় মাইনাস ৭০ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রায়। যদিও ফাইজারের মতো অক্সফোর্ডের টিকারও দু’টি করে ডোজ নিতে হবে। তবে ফাইজারের ক্ষেত্রে দুই ডোজের মধ্যে ব্যবধান তিন সপ্তাহ, আর অক্সফোর্ডের ক্ষেত্রে এই ব্যবধান চার সপ্তাহ।

ব্রিটিশ স্বাস্থ্যমন্ত্রী ম্যাট হ্যানকক বলেছেন, আগামী ৪ জানুয়ারি থেকে যুক্তরাজ্যে অক্সফোর্ডের টিকা দেয়া শুরু হবে। আগামী বছরের প্রথম কয়েক সপ্তাহ টিকাদানে গতি আসবে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

Related posts

ইন্দোনেশিয়ায় দুই বাঘের করোনা

Mims 24 : Powered by information

জিম্বাবুয়েকে হোয়াইটওয়াশ করলো বাংলাদেশের নারীরা

razzak

একুশে পদকপ্রাপ্ত শিল্পী মিতা হক আর নেই

Irani Biswash

Leave a Comment

Translate »