আন্তর্জাতিক এই মাত্র ব্রেকিং

মানুষের চামড়া দিয়ে বাঁধানো বই মিলল হার্ভার্ডে!

ডেস্ক রিপোর্ট : প্রায় দেড়শো বছরের পুরনো একটি বই। তা নিয়ে সম্প্রতি চলেছে কাঁটাছেড়া। আর তা করতে গিয়েই শিউরে উঠেছেন বিজ্ঞানীরা। কারণ বইটি বাঁধানো হয়েছে মানুষের চামড়া দিয়ে। হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের পাঠাগার থেকে সম্প্রতি এমন একটি বই উদ্ধার করেছেন বিজ্ঞানীরা।

দীর্ঘ পরীক্ষা-নিরীক্ষার পরে তারা নিশ্চিত যে কোনও মানুষের চামড়া দিয়েই বাঁধানো হয়েছে বইটি। আর তার পরই শুরু হয়েছে শোরগোল। বিশ্ববিদ্যালয়ের হিউটন পাঠাগারে ১৯৩৪ সাল থেকে রয়েছে ফরাসি লেখক আরসেন হুসেইর লেখা ‘দে দেসতিনে দো লোম’ বইয়ের একটি সংস্করণ।

হাউটন পাঠাগারের ব্লগেই জানানো হয়েছে বইটির ইতিহাস। আর সেই ইতিহাসই বলছে, আঠারোশো আশির মাঝের দিকে বইটি লিখেছিলেন আরসেন। তার পর সেটি উপহার দেন তারই এক ডাক্তার বন্ধুকে। নাম লুডোভিক বুল্যান্ড। এই পর্যন্ত সব ঠিকঠাকই ছিল। গোলমাল বাধে তার পর। নিজেরই কোনও এক মৃত রোগীর চামড়া দিয়ে বইটি বাঁধিয়ে ফেলেন বুল্যান্ড।

ব্লগের তথ্য অনুযায়ী, সম্ভবত সেটি ছিল বুল্যান্ডের এক মহিলা মানসিক রোগীর মৃতদেহ। হৃদ রোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছিল তার। মহিলার কোনও আত্মীয় তার দেহ দাবি করতে না-আসায় আরসেনের লেখা বইটি তারই চামড়া দিয়ে বাঁধিয়ে ফেলেন বুল্যান্ড।

বইটির কভারে নিজের কাজের ব্যাখ্যাও দেন ওই চিকিৎসক। লেখেন, “মানুষের আত্মার উপর লেখা বইয়ে মানুষের চামড়ার মোড়ক তো থাকাই উচিত।”

Related posts

আফগানিস্তানে গত ১৬ বছরে সাড়ে ২৮ হাজার শিশুর প্রাণহানি

razzak

বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ক অন্য দেশের সঙ্গে তুলনীয় নয়: শ্রিংলা

razzak

অভিযানে ইউক্রনের ৮৪৭ বেসামরিক নাগরিক নিহত

razzak

Leave a Comment

Translate »