ডিসেম্বর ১, ২০২২
MIMS 24
কোভিড ১৯ জাতীয় জীবনধারা ধর্ম ও জীবন বাংলাদেশ সংগঠন সংবাদ সেবামূলক কাজ স্বাস্থ্য

নেই সেলফি, আছে মানবতার ইফতার বিতরণ

ডেস্ক রিপোর্ট: করোনার দ্বিতীয় ঢেউ প্রায় থামিয়ে দিয়েছে বিশ্ব। এমনই ক্রান্তিলগ্নে মুসলিম বিশ্বে এসেছে পবিত্র রোজা পালনের মাস রমজান।  দেশব্যাপী কঠোর লকডাউনের কারণে বিকেলের পর খাবার দোকান বন্ধ হয়ে যায়। ফুটপাতে ইফতারসামগ্রীর পসরাও তেমন বসে না। মসজিদে ইফতারির আয়োজনও বন্ধ। এদিকে অসহায় মানুষেরা পেটের তাগিদে বের হন পথে। পবিত্র রমজান মাসে এমন মানুষদের জন্য ইফতারের আয়োজন করছে পটুয়াখালীর কিছু স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন। সংগঠনের সদস্যরা স্বাস্থ্যবিধি মেনে খাবারের প্যাকেট তুলে দিচ্ছেন। কোনো সংগঠন আবার শহরের সড়কদ্বীপের ওপর নির্দিষ্ট দূরত্বে ইফতারির প্যাকেট সাজিয়ে রাখছে, খেটে খাওয়া মানুষেরা সেখান থেকে নিয়ে নিচ্ছেন ইফতারির প্যাকেট।

পটুয়াখালী শহরের শেখ রাসেল শিশু পার্ক গোলচত্বরে। গোলচত্বরের আইল্যান্ডে কিছুটা দূরত্ব রেখে সাজিয়ে রাখা হয়েছে ইফতারির প্যাকেট ও পানির বোতল। সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার বিষয়টি মাথায় রেখে ইফতার বিতরণের এ ব্যতিক্রমী আয়োজন করছেন মেহেদী হাসান নামের এক তরুণ।

তিনি বলেন, ‘লকডাউনের কারণে তেমন রোজগার না থাকায় বিপাকে পড়েছেন রিকশা ও ভ্যানচালক থেকে শুরু করে অসংখ্য শ্রমজীবী মানুষ। রমজান মাসে ইফতারি নিয়ে রোজাদার এসব শ্রমজীবীর পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা করছি। নিজের ব্যক্তিগত অর্থ দিয়ে প্রাথমিকভাবে ১০০ জনের মধ্যে ইফতারসামগ্রী বিতরণ করছি। আমাকে সহযোগিতা করছেন বন্ধু জাহানারা বেগম, ইলিয়াসুর রহমান, আবু বকর মাতবরেরা।’

আবদুল খালেক নামের এক রিকশাচালক জানান, তাঁর বাড়ি সদর উপজেলার কালিকাপুর ইউনিয়নের শারিকখালী এলাকায়। লকডাউনের মধ্যে রিকশা নিয়ে নামতে হয় তাঁকে। আয় কম, ইফতারি কিনতে অনেক টাকা লাগে। কিন্তু ইফতারের আগে চত্বরে এসে পৌঁছালেই ইফতারি পাওয়া যায়।

স্বেচ্ছাসেবীরাও স্বস্তির সঙ্গে ইফতারি বিতরণ করতে পেরে খুশি। সাজিয়ে রাখা ইফতারি নিয়ম মেনে সবাই হাতে তুলে নেন। কেউ বাড়তি প্যাকেট নিচ্ছেন না, কোনো হইচই নেই।

Related posts

করোনায় বিশ্বে আক্রান্ত-মৃত্যু কমেছে

razzak

আর্জেন্টিনার ঘরোয়া ফুটবল ম্যাচের আগে রিভারপ্লেটে করোনার থাবা

Irani Biswash

আঙুলের চিকিৎসা করাতে এসে প্রাণ গেল স্বর্ণজয়ী প্রিয়াংকার

razzak

Leave a Comment

Translate »