ডিসেম্বর ২, ২০২২
MIMS 24
আন্তর্জাতিক জাতীয় বাংলাদেশ শিক্ষা

সরকারের অনুমতি ছাড়া বিদেশি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বেআইনি

নিজস্ব সংবাদদাতা: বাংলাদেশ সরকারের অনুমতি ছাড়া বিদেশি বিশ্ববিদ্যালয় বা প্রতিষ্ঠানের কোনো শাখা ক্যাম্পাস বা স্টাডি সেন্টারে শিক্ষার্থী ভর্তি বা শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনা করা সম্পূর্ণ বেআইনি। সম্প্রতি ব্রিটেনের বিখ্যাত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ‘লন্ডন স্কুল অব কমার্স’র নামে রাজধানীতে অনুমোদনহীন একটি স্টাডি সেন্টারের খোঁজ পেয়েছে বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি)।

ঢাকার এই প্রতিষ্ঠানটি ব্রিটেনের ওয়ারেহাম গ্লেন্ডওয়ার বিশ্ববিদ্যালয়, ইউনিভার্সিটি অব বেডফোর্ডশায়ার এবং স্কটিশ কোয়ালিফিকেশন অথরিটির অধীনে বিভিন্ন ধরনের ডিপ্লোমা, স্নাতক, মাস্টার্স এবং ডক্টরেট ডিগ্রি প্রদান করছে। মঙ্গলবার (২৭ এপ্রিল) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে ইউজিসি এ তথ্য জানিয়েছে।

ইউজিসি বলছে, ঢাকার প্রতিষ্ঠানটির নামে ২০০৭ সালে একটি ওয়েবসাইট www.lscdhaka.org খোলা হয়েছে এবং শিক্ষার্থী ভর্তির বিজ্ঞপ্তি দেওয়া হয়েছে, যা সম্প্রতি ইউজিসির নজরে এসেছে। এটি পরিচালনায় সরকার ও কমিশনের অনুমোদন নেই।

ইউজিসি খোঁজ নিয়ে জেনেছে, ২০০৫ সাল থেকে এই প্রতিষ্ঠান ঢাকায় কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে। রাজধানীর গুলশান-২ এর গুলশান সেন্টার এবং বনানীর ওশান টাওয়ারে এলএসসি’র দুটি অফিস খোলা হয়েছে। এখানে অনার্স-মাস্টার্স মিলিয়ে বিভিন্ন কোর্সের মেয়াদ আট মাস থেকে দুই বছর।

ইউজিসির বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত সদস্য প্রসেফর ড. বিশ্বজিৎ চন্দ বলেন, বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় আইন-২০১০ এর ধারা ৩(৩) ও ৩৯ অনুযায়ী— বাংলাদেশ সরকারের অনুমতি ছাড়া বিদেশি বিশ্ববিদ্যালয় বা প্রতিষ্ঠানের কোনো শাখা ক্যাম্পাস বা স্টাডি সেন্টারে শিক্ষার্থী ভর্তি বা শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনা করা সম্পূর্ণ বেআইনি। এই আইনের ৪৯ ধারা অনুযায়ী তা শাস্তিযোগ্য ফৌজদারি অপরাধ। একইসঙ্গে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী ও চাকরি প্রত্যাশীদের এই প্রতিষ্ঠানের বিষয়ে সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি।

Related posts

আমরা উদ্বিগ্ন: সিইসি

razzak

প্রতিপক্ষ দমনে বাইডেনের বিরুদ্ধে ‘সন্ত্রাসী আইন’ ব্যবহারের অভিযোগ

razzak

ডিসেম্বর মাসের মধ্যে এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফল প্রকাশ হচ্ছে না

Mims 24 : Powered by information

Leave a Comment

Translate »