অর্থনীতি জাতীয় জীবনধারা টেকনোলজি নারী বাংলাদেশ ব্রেকিং

বাংলা ওসিআর পুঁথি আবিস্কার করলেন হিমিকা

নিজস্ব সংবাদদাতা: অপটিক‍্যাল ওসিআর, যার মাধ্যমে লিখিত কন্টেন্টকে ডিজিটাল মাধ্যমে সংগ্রহ করা যায়। বাংলা ভাষার ক্ষেত্রে তা ছিলো অনেক কঠিন। যার সমাধান দিয়েছে টিম ইঞ্জিন লিমিটেড। তৈরি করেছে বাংলা ওসিআর পুঁথি। এর নেপথ্য কারিগর নারী উদ্যোক্তা সামিরা জুবেরি হিমিকা।

টিম ইঞ্জিন এর ফাউন্ডার ও গিগা টেক এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক সামিরা জুবেরি হিমিকা। যে দেশে অধিকাংশ মানুষ স্বপ্ন দেখে একটা ভালো চাকরির, সেখানে একটা ভালো চাকরি ছেড়ে প্রায় ঝুঁকি নিয়েই ব্যবসা শুরু করেছেন তিনি। চাকরিজীবন শুরু হয়েছিল ইউএনডিপি’র মাধ্যমে। এরপর বিবিসির মার্কেটিং ও কমিউনিকেশনের ডেপুটি হেড হিসেবে নির্বাচনী সংলাপ, বিবিসি জানালা, বিবিসি বাজ, বিবিসি ওয়ার্ল্ড ডিবেট ইন ঢাকা, বাংলাদেশ সংলাপ প্রোগ্রামের সাথে যুক্ত ছিলেন। এছাড়া বাংলাদেশ স্টার্টআপ কাপের সংগঠক; স্টার্টআপ উইকেন্ড ঢাকা, ওয়ার্ল্ড হ্যাকাথনসহ দেশে বিদেশে বিশটির বেশি স্টার্টআপ কর্মসূচির বিচারক, প্রশিক্ষক, আয়োজক এবং বক্তা।

তিনি বলেন, আমি যখন কাজ শুরুর কথা ভাবি তখন বাসায় জানাই। আমার মা বাবা খুবই সাপোর্টিভ। তারা আমার কাজকে সাপোর্ট দেন। আমি জানতাম যদি তখন ব্যবসা শুরু করতে না পারতাম তাহলে অনেক দেরি হয়ে যাবে। শুরুটা অনেক কঠিন না হলেও বেশ কঠিন ছিল। যেহেতু আইটি সেক্টরে মেয়েদের কাজের সুযোগ কম, তাই আমাকে প্রথমেই বুঝিয়ে দিতে হয়েছে আমি কাজের জায়গায় দক্ষ। তাই আমাকে মেয়ে হিসেবে বিচার করা বা দেখার কিছু নেই। এটা আমার কাজের মাঝে আসতে পারে না। মেয়েরা সাধারণত কাজের ব্যাপারে বেশ দক্ষ। তারা প্রচুর পরিশ্রম করে। তাই মেয়েদের কাজ নিয়ে বলার কিছু থাকে না। তখন তৈরি হয় গল্প। তখন তার ইমেইজ নষ্ট করার চেষ্টা করা হয়। আমি এসব ঠাণ্ডা মাথায় দেখেছি এবং বুঝেছি।

হিমিকা জানান পরিবারের প্রথম ব্যবসায়ী তিনি। তাই পারিবারিক ব্যবসা দেখার বা সেখান থেকে শেখার সুযোগ তার ছিল না। শিখেছেন কাজ করতে গিয়ে। নিজে ধাক্কা খেয়ে, দেখে, লড়াই করে। সেখান থেকে এখানে আসার পথটা কতটা বন্ধুর ছিল তা অনেকটাই অনুমান করা যায়।

 

 

Related posts

শাল্লার ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ আলবার্টা আওয়ামি লীগের

Mims 24 : Powered by information

বাংলাদেশের ২২তম রাষ্ট্রপতি হচ্ছেন মোহাম্মদ সাহাবুদ্দিন আহমেদ

Mims 24 : Powered by information

নৌকা উল্টে ৪৩ অভিবাসীর প্রাণহানি

razzak

Leave a Comment

Translate »