আন্তর্জাতিক কোলকাতা চ্যাপ্টার ব্রেকিং রাজনীতি সংগঠন সংবাদ

তৃতীয়বারের মতো শপথ নিলেন মমতা ব্যানার্জী

আর্ন্তজাতিক ডেস্ক: টানা তৃতীয়বারের জন্য পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে বুধবার রাজভবনে শপথ নেবেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় । কোভিড অতিমারী পরিস্থিতির জন্য এই অনুষ্ঠান সংক্ষিপ্ত ও অনাড়ম্বর ভাবে আয়োজন করা হচ্ছে। রাজভবন সূত্রের খবর, এদিন শুধুমাত্র মুখ্যমন্ত্রীই শপথ নেবেন। মন্ত্রিসভার অন্য সদস্যরা পরে শপথ নেবেন। এই অনুষ্ঠানে সব মিলিয়ে ৫০ জন অতিথি আমন্ত্রিত হয়েছেন। এই তালিকায় যেমন নাম রয়েছে প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের, তেমনই আছে ভারতীয় ক্রিকেট দলের প্রাক্তন অধিনায়ক কথা সিবিসিআই সভাপতি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের নামও। বুদ্ধদেব অবশ্য অসুস্থতার কারণে এখন পুরোপুরি ঘরবন্দি ও শয্যাশায়ী। তিনি ভোট দিতেও যেতে পারেননি। শপথ অনুষ্ঠানে তাঁর হাজির থাকার সম্ভাবনা নেই বললেই চলে।

এছাড়া আমন্ত্রিত অতিথিদের মধ্যে বিশিষ্ট চিকিৎসক সুকুমার মুখোপাধ্যায়, রামকৃষ্ণ মঠ ও মিশনের সাধারণ সম্পাদক স্বামী সুবীরানন্দ, ভারত সেবাশ্রম সংঘের সাধারণ সম্পাদক স্বামী বিশ্বাত্মানন্দ এবং সেন্ট জেভিয়ার্স বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ফেলিক্স রাজও রয়েছেন। আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়, তৃণমূলের হয়ে এবার কার্যকরী ভূমিকা নেওয়া ভোটকুশলী প্রশান্ত কিশোর, বামফ্রন্ট চেয়ারম্যান বিমান বসু, বিধানসভার অধ্যক্ষ বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়, বিদায়ী বিধানসভার বিজেপির পরিষদীয় দলনেতা মনোজ টিগ্গা, সাংসদ হিসেবে বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ, কংগ্রেস সাংসদ প্রদীপ ভট্টাচার্যকেও। আরও চার তৃণমূল কংগ্রেসের সাংসদ এই শপথ গ্রহণে আমন্ত্রিত হয়েছেন। এঁরা হলেন সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়, সৌগত রায়, শতাব্দী রায় এবং দেব। সংক্ষিপ্ত এই শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানের জন্য বিদায়ী মন্ত্রিসভার মাত্র চার সদস্য পার্থ চট্টোপাধ্যায়, সুব্রত মুখোপাধ্যায়, ফিরহাদ হাকিম ও অরূপ বিশ্বাস আমন্ত্রণ পেয়েছেন। অবশ্যই থাকবেন রাজ্যের মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়, স্বরাষ্ট্রসচিব হরিকৃষ্ণ দ্বিবেদী, রাজ্য পুলিশের ডিজি পি নীরজনয়ন, কলকাতার পুলিশ কমিশনার সৌমেন মিত্র সহ সাত আধিকারিক।

সকাল পৌনে ১১টায় রাজভবনের থ্রোন রুমে এই শপথগ্রহণ অনুষ্ঠান শেষ হয়। এর পরই মমতা রওনা দেন নবান্নে। সেখানে রীতি মেনে কলকাতা পুলিশের পক্ষ থেকে মুখ্যমন্ত্রীকে গার্ড অফ অনার দেওয়া হয়। পুলিশের বিউগলে বেজে উঠে জাতীয় সঙ্গীত। আট মিনিটের এই অনুষ্ঠানের পরই তিনি চলে যান চোদ্দো তলায় নিজের কক্ষে। তিনি কোভিড পরিস্থিতি নিয়ে প্রশাসনিক আধিকারিকদের সঙ্গে বৈঠক করেন। কোভিড টিকা ও চিকিৎসা নিয়ে বড় কোনও সিদ্ধান্তও তিনি ঘোষণা করতে পারেন। যদিও কেয়ারটেকার মুখ্যমন্ত্রী হিসেবেও মমতা নিয়মিত কোভিড পরিস্থিতি নজরদারি করেছেন। ভোট পরবর্তী আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়েও তিনি বৈঠক করতে পারেন।

Related posts

২৯ নাবিকসহ ইউক্রেনে আটকা পড়েছে বাংলাদেশি জাহাজ

razzak

পররাষ্ট্র সচিব ডি-৮ কমিশনের সভাপতি হলেন

Irani Biswash

হেফাজতে ইসলামের দুই নেতা গ্রেফতার

Irani Biswash

Leave a Comment

Translate »