কোভিড ১৯ খেলাধুলা জাতীয় জীবনধারা ধর্ম ও জীবন বাংলাদেশ বিনোদন ব্রেকিং সংগঠন সংবাদ স্বাস্থ্য

দুই ফুটবলার সোহেল ও সুফিলের বিয়ের পর প্রথম ঈদ

খেলার খবর:  সম্প্রতি বিয়ে করেছেন জাতীয় দলের দুই তারকা ফুটবলার সোহেল রানা ও মাহবুবুর সুফিল। বিয়ের পর প্রথম ঈদ স্ত্রীর সঙ্গে কাটাবেন দুই নববিবাহিত ফুটবলারেরা।

বসুন্ধরা কিংসের ফুটবলার সুফিলের দেশের বাইরে থাকার কথা ছিল ঈদের সময়। এএফসি কাপ না হওয়ায় এখন দেশেই আছেন। দেশে থাকলেও ঈদের সময় থাকার কথা জাতীয় দলের ক্যাম্পে। জাতীয় দলের ক্যাম্পে আকস্মিক স্থগিত হওয়ায় এবং ক্লাবের ছুটি পাওয়ায়  স্ত্রীর সঙ্গে সময় কাটানোর সময় পাচ্ছেন সুফিল। এ বিষয়ে নিজের অভিমত প্রকাশ করে বলেন,  ‘১১ তারিখ শ্রীমঙ্গল এসেছি। এই সময় বাড়িতে আসার কথা ছিল না।’ পরিবারের সঙ্গে ঈদ করলেও মিস করছেন মালদ্বীপ সফর। তিনি বলেন, ‘আমাদের জন্য খুব খারাপ হয়ে গেল টুর্নামেন্ট না হওয়ায়। চার দলের মধ্যে আমরাই সেরা হতাম। কারণ আমাদের প্রস্তুতি ছিল ভালো।’

সোহেল রানা ১০ মে জাতীয় দলের ক্যাম্পে যোগ দিয়েছেন। তার স্ত্রী ঢাকাতেই থাকেন। হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে ক্যাম্প হচ্ছিল জাতীয় দলের। ক্যাম্প স্থগিত হওয়ায় বাসায় চলে গেছেন সোহেল। এ প্রসঙ্গে সোহেল রানা বলেন, ‘ঈদ ক্যাম্পেই করতে হবে এমন মানসিক প্রস্তুতি ছিল। শেষ মুহূর্তে সিদ্ধান্ত হয় ঈদের আগে স্থগিত ক্যাম্প। তাই পরিবারের সঙ্গে ঈদ করতে পারব।’

জাতীয় ফুটবল দলের এই সিনিয়র ফুটবলার আরও বলেন, ‘আমরা এখন দেশকে প্রতিনিধিত্ব করি। দেশের স্বার্থে পরিবার, স্ত্রীর সঙ্গ খানিকটা ত্যাগ করতেই হয়। আশা করি আমরা দেশকে ফুটবলের মাধ্যমে ভালো কিছুই দেব।’ সোহেলের স্ত্রী তামিলা সিরাজী বলেন, ‘খুব ভালো লাগছে সোহেল বাসায় ফিরছে। তবে ক্যাম্পে থাকলেও আমি মন খারাপ করতাম না। দেশের জন্য ও পরিবার এবং আমার থেকে দূরে থাকতো। এতটুকু ত্যাগ স্ত্রী হিসেবে আমি করতে প্রস্তুত।’

মাহবুবুর রহমান সুফিল বিয়ে করেছেন জাতীয় ক্রিকেটার জিন্নাত আছিয়াকে। কয়েক বছর প্রেমের পর তারা বিয়ে করেন। সোহেল রানা সৈয়দা তামিলা সিরাজীর (অনামিকা) সঙ্গে প্রেম করেছেন ছয় বছরের বেশি। এই বছর মার্চে তারা আনুষ্ঠানিকভাবে জুটি গড়েন

 

Related posts

পিএসজিকে জেতাতে পারলো না মেসি-নেইমার-এমবাপ্পে

razzak

কুমিল্লা কেন্দ্রীয় কারাগারে দুই জনের ফাঁসি কার্যকর

razzak

সাংবাদিকরা আমাদের উন্নয়ন সহযোগী: তথ্যমন্ত্রী

razzak

Leave a Comment

Translate »