ডিসেম্বর ১, ২০২২
MIMS 24
অর্থনীতি আন্তর্জাতিক ব্রেকিং যুক্তরাষ্ট্র

পৃথিবীর সবচেয়ে দামী আম

নিজস্ব সংবাদদাতা: হরেকরকম আম মেলে ভারত’বর্ষে। তবে বিশ্বের সব থেকে দামি আম কিন্তু ভারতবর্ষে পাওয়া যায় না। সেই আম এক কেজি কিনতে গিয়ে অনেক ধনী ব্যক্তিও ঢোঁক গিলেন। তাইও নো তামাগো মানে Egg of the sun. এই প্রজাতির আম বিশ্বে সব থেকে দামি। এটির চাষ হয় জাপানের মায়াজাকি অঞ্চলে। বিক্রি হয় জাপানজুড়ে। প্রতি বছর প্রথম ফলন করা আম নিলামে তোলা হয়। আর সেই আম বিক্রি আকাশছোঁয়া দামে। তবে এই আমের ফলন আর পাঁচটা প্রজাতির আমের মতো হয় না। অর্ডারের উপর নির্ভর করে এই আমের ফলন। এই প্রজাতির আম অর্ধেক লাল, অর্ধেক হলুদ।

আশ্চর্যজনক এই আম এক  সাধারণ কৃষক ইরভিন 1940 এর দশকে ফ্লোরিডায় উৎপন্ন করেছিল। জাপানে এই প্রজাতির আমের ফলন হয় গরম ও শীতের মাঝে। জাপানি কৃষকরা প্রতিটি আমকে একটি ছোট জালের সাথে ঘিরে রাখে, যা সূর্যের আলোকে সমস্ত কোণে ত্বককে আঘাত করতে দেয় (একে অভিন্ন, রুবি-লাল রঙ দেয়) এবং গাছ থেকে পড়ে ফলটি কাটতে পারে। ম্যানুয়ালি তাদের বাছাইয়ের পর আমের প্রস্তুত হয়ে গেলে কেবল আম পাকার অপেক্ষায় থাকে, পুরাপুরি পাকাভাব নিশ্চিত হলে তবেই খাওয়ার জন্য সংরক্ষন করা হয়। এই স্পেশাল মায়ামী আমগুলি একেবারে সুস্বাদু। এগুলির খুব অল্প পরিমাণে তন্তু রয়েছে, অত্যন্ত রসালো এবং ব্যবহারিকভাবে আপনার মুখে গলে যায়। এর স্বাদ পুরোপুরি মিষ্টি এবং তরমু, আনারস এবং নারকেলের ইঙ্গিতযুক্ত আমের ক্যান্ডির মতো।

আর সেই জন্যই এই আমের দাম এমন চড়া হয়। এতে করে সূর্যের আলো আমের একটি নির্দিষ্ট অংশে পড়ে। তা ছাড়া আমগুলিকে গাছ থেকে মা’টিতে পড়তে দেওয়া হয় না। বিশেষ পদ্ধতি অবলম্বন করে আমের এক পাশে রুবি রেড রং ধ;রানো হয়। আর স্বাদের কথা বলাবাহুল্য। যেমন দাম তেমনই তার স্বাদ ও গন্ধ।

২০১৭ সালে এই প্রজাতির দুটি আমের নিলামে দাম উঠেছিল ৩৬০০ ডলার। অর্থাৎ প্রায় দুই লাখ ৭২ হা’জার টাকা। সে বছর প্রতিটি আমের ওজন ছিল ৩৫০ গ্রাম। অর্থাৎ মাত্র ৭০০ গ্রাম আমের দাম দুই লাখ ৭২ হাজার টাকা।

Related posts

অতিরিক্ত টুথপেস্ট ব্যবহারে ক্ষতি

razzak

কুয়েতের স্বাধীনতা দিবসে ৩৫০ বন্দিকে সাধারণ ক্ষমা

razzak

পরিবেশবান্ধব বিজ্ঞাপনী প্রচারণায় স্কয়ার টয়লেট্রিজ লিমিটেড

razzak

Leave a Comment

Translate »