অপরাধ আইন ও বিচার কোভিড ১৯ জনদুর্ভোগ জাতীয় জীবনধারা পরিবেশ বাংলাদেশ ব্রেকিং রাজনীতি স্বাস্থ্য

যানবাহন বন্ধ থাকায় অ্যাম্বুলেন্সে চলছে যাত্রী সেবা

 নিজস্ব সংবাদদাতা: করোনার সংক্রমণ প্রতিরোধে সারাদেশে গণপরিবহন বন্ধ রয়েছে। এরই মধ্যে  ঈদের ছুটি শেষে করোনা সংক্রমণের ঝুঁকি নিয়েই রাজধানীতে ফিরতে শুরু করেছে সাধারণ মানুষ।  ফলে অনেক মানুষ লঞ্চ, ট্রেন ও বাসের বিকল্প হিসেবে অ্যাম্বুলেন্স, মাইক্রোবাস ও ট্রাক বেছে নিয়েছেন।

বাসস্ট্যান্ড থেকে প্রায় ২০-২৫টি অ্যাম্বুলেন্স যাত্রী নিয়ে রাজধানীর উদ্দেশে ছেড়ে গেছে। প্রতিটি অ্যাম্বুলেন্সে ১০ থেকে ১২ জন করে গাদাগাদি করে নিয়ে যাচ্ছেন চালকরা মঙ্গলবার সকাল এই চিত্র দেখা যায় একটি জেলা শহরে।

এদিকে কাজের প্রয়োজনে কর্মস্থলে ফিরতে শুরু করেছে মানুষ। বিকল্প পরিবহন ব্যবহার করতে না পেরে তাদের গুনতে হচ্ছে তিন থেকে চার গুণ অতিরিক্ত ভাড়া। সবচেয়ে বেশি ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে দিনমজুর ও শ্রমজীবী মানুষকে।

বাসস্ট্যান্ডে বাসের অপেক্ষায় থাকা ঢাকার যাত্রী হাফিজুল বলেন, আমি ঢাকায় একটি কারখানায় কাজ করি। সকালে বের হয়ে শরীয়তপুর থেকে ট্রলারে করে খুব কষ্টে বাসস্ট্যান্ডে এসেছি। কিন্তু এখানে এসে দেখি ঢাকায় যাওয়ার কোনো পরিবহন নেই। তাই অ্যাম্বুলেন্সে করে যাওয়ার চেষ্টা করেছি। ভাড়া তিন গুণ, তবু কর্মস্থলে যেতে হবে।

অ্যাম্বুলেন্সচালক মনির হোসেন বলেন, সরকার যেভাবে লকডাউন দিয়েছে, সবাইকে না খেয়ে মরতে হবে। মানুষ ঢাকায় অ্যাম্বুলেন্সে যেতে আগ্রহী, তাই নিয়ে যাচ্ছি। রোগীর অ্যাম্বুলেন্সে যাত্রী নেওয়া কি ঠিক, এমন প্রশ্নের জবাবে মনির বলেন, ভাই, এত নিয়মকানুন বুঝি না। যাত্রী নিলে টাকা পাব। ইনকাম না থাকলে পরিবার চালামু কেমনে?

চাঁদপুর ট্রাফিক পুলিশের পরিদর্শক (টিআই) মো. জহিরুল ইসলাম ভূইয়া বলেন, অ্যাম্বুলেন্সে করে যাত্রী নেওয়ার কোনো নির্দেশনা নেই। যারা এ কাজটি করছে, সম্পূর্ণ বেআইনি। ঈদের কারণে আমাদের লোকবল-সংকট। আশা করি আগামীকাল থেকে একটি অ্যাম্বুলেন্সেও যাত্রী নিতে দেওয়া হবে না।

Related posts

বিশ্বে কমেছে খাদ্যপণ্যের দাম

razzak

দুই বছর আগে মারা যাওয়া নারীর খোঁজ নেননি কেউ, কঙ্কাল উদ্ধার

razzak

সাবেক সহকর্মীর সঙ্গে সম্পর্কের জেরে কানাডার টরন্টো সিটি মেয়রের পদত্যাগ

Mims 24 : Powered by information

Leave a Comment

Translate »