অর্থনীতি কোভিড ১৯ জাতীয় জীবনধারা বাংলাদেশ ব্রেকিং রাজনীতি

ইতিহাসের বৃহত্তম বাজেট পেশ করা হলো

নিজস্ব সংবাদদাতা:  বহুলালোচিত ২০২১-২২ অর্থবছরের বাজেট আজ জাতীয় সংসদে উত্থাপন করা হয়েছে । ইতিহাসের বৃহত্তম এই বাজেটের আকার ৬ লাখ ৩ হাজার ৬৮১ কোটি টাকা। ‘জীবন-জীবিকায় প্রাধান্য দিয়ে সুদৃঢ় আগামীর পথে বাংলাদেশ’ শিরোনামের এই বাজেটে অগ্রাধিকার দেওয়া হয়েছে করোনাভাইরাস অভিঘাত থেকে মোকাবিলার বিষয়টি। বিশেষ করে অর্থনীতি পুনরুদ্ধার, কর্মসংস্থান সৃজন, প্রান্তিক জনগোষ্ঠীকে সামাজিক নিরাপত্তার আওতায় নিয়ে আসা, স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করা— এই বিষয়গুলোকে বাজেটে বিশেষ গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে।

প্রস্তাবিত ২০২০-২১০ অর্থবছরের বাজেটের চূড়ান্ত আকার (ব্যয়) ধরা হয়েছে ৬ লাখ ৩ হাজার ৬৮১ কোটি টাকা। এটি মোট জিডিপি‘র (মোট দেশজ উৎপাদন) ১৭ দশমিক ৫০ শতাংশ। এতে মোট আয়ের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ৩ লাখ ৮৯ হাজার কোটি  টাকা। ঘাটতি ধরা হয়েছে ২ লাখ ১৪ হাজার ৬৮১ কোটি টাকা। ঘাটতির পরিমাণ জিডিপির ৬ দশমিক ২ শতাংশ।

প্রস্তাবিত বাজেটে মূল্যস্ফীতি ধরা হয়েছে ৫ দশমিক ৩ শতাংশ। বাজেটের অর্থনীতি প্রবৃদ্ধি ধরা হয়েছে ৭ দশমিক ২ শতাংশ। ২০২১-২২ অর্থবছরে বাজেটে মোট জিডিপি‘র আকার ৩৪ লাখ ৭৩ হাজার ৯১১ কোটি টাকা।

বাজেটের মোট আয়ের মধ্যে রাজস্ব খাত থেকে আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে ৩ লাখ ৮৯ হাজার কোটি টাকা এবং বৈদেশিক অনুদান নেওয়া হবে ৩ হাজার ৪৯০ কোটি টাকা। মোট রাজস্ব আয়ের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ৩ লাখ ৪৬ হাজার কোটি টাকা। এই মধ্যে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) থেকে সরাসরি কর ৩ লাখ ৩০ হাজার কোটি টাকা এবং এনবিআর বহির্ভূত কর ১৬ হাজার কোটি টাকা। তাছাড়া কর ছাড়া প্রাপ্তি ধরা হচ্ছে ৪৩ হাজার কোটি টাকা।

২০২১-২২ অর্থবছরের বাজেটে মোট ঘাটতি ২ লাখ ১৪ হাজার ৬৮১ কোটি টাকা। বাজেট ঘাটতি মোকাবিলায় বৈদেশিক অর্থায়ন থেকে ঋণ নেওয়া হবে ১ লাখ ১ হাজার ২২৮ কোটি টাকা। আর অভ্যন্তরীণ খাত থেকে ঋণ নেওয়া হবে ১ লাখ ১৩ হাজার ৪৫৩ কোটি টাকা। আভ্যন্তরীণ উৎসের মধ্যে ব্যাংকিং খাত থেকে নেওয়া হবে ৭৬ হাজার ৪৫২ কোটি টাকা এবং সঞ্চয়পত্র ও ব্যাংক বহির্ভূত খাত থেকে নেওয়া হবে ৩৭ হাজার ১ কোটি টাকা।

আগামী ২০২১-২২ অর্থবছরে বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচির (এডিপি) আকার নির্ধারণ করা হয়েছে ২ লাখ ২৫ হাজার ৩২৪ কোটি ১৪ লাখ টাকা। এর মধ্যে সরকারি তহবিল থেকে ১ লাখ ৩৭ হাজার ২৯৯ কোটি ৯১ লাখ টাকা এবং বৈদেশিক ঋণ সহায়তা থেকে ৮৮ হাজার ২৪ কোটি ২৩ লাখ টাকা অর্থায়নের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে।

নতুন এডিপি’র এই আকার চলতি অর্থবছরের মূল এডিপি’র তুলনায় ৯ দশমিক ৮৪ শতাংশ এবং সংশোধিত এডিপি’র তুলনায় ১৪ শতাংশ বেশি। চলতি ২০২০-২১ অর্থবছরের মূল এডিপি’র আকার ছিল ২ লাখ ৫ হাজার ১৪৪ কোটি ৭৯ লাখ টাকা এবং সংশোধিত এডিপি’র আকার হচ্ছে ১ লাখ ৯৭ হাজার ৬৪৩ কোটি টাকা।

Related posts

ইংল্যান্ড সফরে ভারতীয় ক্রিকেট দল ২৪ দিনের কোরেন্টাইনে

Irani Biswash

বঙ্গবন্ধু পরিষদের নতুন কমিটি গঠন

razzak

করোনাক্রান্ত বাপ্পি লাহিড়ী

শাহাদাৎ আশরাফ

Leave a Comment

Translate »