সেপ্টেম্বর ৩০, ২০২২
MIMS 24
আন্তর্জাতিক খেলাধুলা জীবনধারা ব্রেকিং যুক্তরাষ্ট্র সংগঠন সংবাদ

নেইমারের কান্নায় হেসে উঠলো মেসিপ্রেমি বিশ্ব

খেলার খবর :    অপেক্ষার অবসান ঘটল অবশেষে। ২৮ বছর পর মেজর কোনো টুর্নামেন্টের শিরোপা উঠল আর্জেন্টিনার হাতে। সেই সঙ্গে লিওনেল মেসির হাতেও উঠলো প্রথম আন্তর্জাতিক কোনো শিরোপা। টানা চারটি ফাইনাল হারের পর অবশেষে কোপা আমেরিকা ২০২১ এ স্বাগতিক ব্রাজিলকে ১-০ গোলের ব্যবধানে হারিয়ে শিরোপা ঘরে তুলল আর্জেন্টিনা। আলবেসিলেস্তেদের হয়ে জয়সূচক গোলটি করেন অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া।

ম্যাচের ২০ মিনিটে মধ্যমাঠ থেকে রদ্রিগো ডি পল লং বল বাড়িয়ে দেন ডান দিকে থাকা ডি মারিয়ার উদ্দেশে। ব্রাজিলের বাঁ দিকের রক্ষণে থাকা রেনান লোদির হালকা স্পর্শে বল পেয়ে যান ডি মারিয়া। এরপর বল নিয়ে একাই ঢুকে পড়েন ডি-বক্সে। মারিয়াকে বল নিয়ে এগিয়ে আসতে দেখে গোললাইন ছেড়ে এগিয়ে যান ব্রাজিল গোলরক্ষক এডারসন। আর তাকে এগিয়ে আসতে দেখেই মাথার ওপর দিয়ে ফ্লিক করে বল জালে জড়ান ডি মারিয়া।

আর ডি মারিয়ার এই গোলটিই ব্যবধানে গড়ে দেয় ম্যাচের। আর অবসান ঘটে আর্জেন্টিনার ২৮ বছরের অপেক্ষার। ১৯৯৩ সালের পর এই প্রথম মেজর কোনো টুর্নামেন্টের শিরোপা ঘরে তুললো আর্জেন্টিনা। এর আগে ২০০৭ সালে ব্রাজিলের বিপক্ষে আর ২০১৫ ও ২০১৬ সালে চিলির কাছে হারলেও এবারে আর পথভ্রষ্ট হয়নি লিওনেল মেসিরা। টানা চারটি ফাইনালে হারের পর অবশেষে লিওনেল মেসির হাতে উঠলো আন্তর্জাতিক শিরোপা।

ঐতিহাসিক মারাকানায় ম্যাচের শুরু থেকেই বল দখলে দুই দলের আধিপত্য ছিল প্রায় সমানে সমান। আক্রমণেও তাই। তবে প্রথম ২০ মিনিট পর্যন্ত ব্রাজিলের আক্রমণভাগে হানা দিতে পারেনি আর্জেন্টিনা। বরং ব্রাজিল ভীতি ছড়িয়েছে। ম্যাচে ফাউল করে খেলার প্রবণতাও ছিল বেশি।

১৩ মিনিটে ব্রাজিল ভালো সুযোগ পেয়েছিল। নেইমার বক্সে ঢুকে শট নিয়েছিলেন। কিন্তু আর্জেন্টাইন ডিফেন্ডারদের কারণে তা বাধাপ্রাপ্ত হয়। মেসি-মার্টিনেজরা সুযোগের অপেক্ষায় ছিল। ২২ মিনিটে তাতে সফলও হয় তারা। ডি পলের লং থ্রু থেকে ডিফেন্ডার রেনান লোদি ঠিক মতো ক্লিয়ার করতে পারেননি, অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া বল পেয়ে বক্সে ঢুকে গোলরক্ষক এডারসনের মাথার ওপর দিয়ে বা পায়ে সুন্দর ফিনিশিংয়ে গোল করে এগিয়ে দেন আর্জেন্টিনাকে।

নিজর মাটিতে নেইমারের ব্রাজিল হেরেছে। নিজে কেদেছেন, কাঁদিয়েছেন ব্রাজিল সমর্থক ফুটবলপ্রেমিদের। তারই বিপরীতে মেসির আর্জেন্টিনার ঘরে আনন্দউল্লা্স। তার ভক্তদের চোখে আনন্দের ঝিলিক। মেসি একে একে জিতে নিয়েছেন গোটা দশেক লিগ শিরোপা, ইউরোপসেরার তকমাও জিতেছেন চার বার। যে ব্যালন ডি’অর সব ফুটবলারের স্বপ্ন, সেটিকেও ডালভাত বানিয়ে ফেলেছিলেন। শুধু আক্ষেপ ছিল একজায়গাতেই— তর্কাতীতভাবে এই সময়ে সবচেয়ে বড় তারকা এবং তর্কসাপেক্ষে বিশ্বের সেরা ফুটবলার হয়ে ওঠার পরও জাতীয় দলের হয়ে কোনো ট্রফিই নেই মেসির শোকেসে!

শেষ পর্যন্ত ঘুচলো সেই আক্ষেপ। বিশ্বকাপ না হোক, দক্ষিণ আমেরিকার আঞ্চলিক ফুটবল আসর কোপা আমেরিকার শিরোপা জিতল আর্জেন্টিনা। আর গোটা টুর্নামেন্টেই সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়ে আর্জেন্টিনা ও নিজের হয়ে সেই ট্রফি ঘরে তুললেন মেসিই। ফাইনালে গোল না পেলেও কিংবা ম্যাচের একমাত্র গোলে অ্যাসিস্ট না করতে পারলেও টুর্নামেন্ট ট্রফির পাশাপাশি সর্বোচ্চ গোলদাতা আর সেরা খেলোয়াড়ের ট্রফি দুইটিই উঠেছে মেসির হাতেই। এই কোপা আমেরিকাই ৩৪ বছর বয়সী মেসির আঞ্চলিক প্রতিযোগিতায় শেষ টুর্নামেন্ট ধরে নিয়ে বলা যায়, দু’হাত ভরেই তাকে বিদায় দিলো লাতিনের সর্বোচ্চ আসর।

আর্জেন্টিনার আর মেসির শিরোপার এই আক্ষেপ গত একযুগে সমার্থকে পরিণত হয়েছিল। ১৯৯৩ সালে শেষবার কোপা আমেরিকা জিতেছিল আর্জেন্টিনা। এরপর আর কোনো আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টের শিরোপা ঘরে তুলতে পারেনি দলটি। এর মধ্যে তিন তিন বার কোপা আমেরিকার ফাইনাল খেলার সুযোগ হয়েছে। কিন্তু শিরোপা আসেনি। ২০১৪ সালের বিশ্বকাপের মঞ্চেও ফাইনালে উঠেছিল মেসি বাহিনী। কিন্তু নির্ধারিত ৯০ মিনিটের পর অতিরিক্ত ৩০ মিনিটের শেষের দিকে মারিও গোৎসের গোলে সেই ফাইনালও জিতে নেয় জার্মানি। ফলে ২৮ বছরেও শিরোপা খরা কাটেনি আর্জেন্টিনার।

Related posts

ঢাকা-জলপাইগুড়ি ট্রেন চালু হচ্ছে

Mims 24 : Powered by information

সবুজ চোখের আফগান সেই ‘মোনালিসা’ এখন ইতালিতে

razzak

রাবি ভিসির দেওয়া ১৩৮ নিয়োগ স্থগিত

razzak

Leave a Comment

Translate »