আইন ও বিচার আন্তর্জাতিক কোভিড ১৯ জনদুর্ভোগ জীবনধারা পরিবেশ প্রবাস কথা ব্রেকিং যুক্তরাষ্ট্র রাজনীতি স্বাস্থ্য

জনগণের ক্ষোভ সারাতে প্রিমিয়ারদের রাজনৈতিক কৌসুলি হতে হবে

কানাডা সংবাদদাতা:   বৈশ্বিক মহামারির মধ্যে গত ১৬ মাস ধরে জীবন কাটানো যে দু:সাধ্যের তাতে দ্বিমত পোষণ করার লোক খুব কমই আছে। কানাডার প্রিমিয়াররাও নিঃসন্দেহে এর বাইরে নন। কারণ কোভিড-১৯ সংক্রমণের রাশ টানতে তাদেরকেও বারংবার স্কুল ও অর্থনৈতিক কর্মকান্ডের বড় অংশ বন্ধ রাখতে বাধ্য হতে হয়েছে। ধরে রাখতে হয়েছে নিজ নিজ প্রদেশ ও অঞ্চলের হাসপাতালের সক্ষমতা। কনজার্ভেটিভ কৌসলি ও সাসেক্স স্ট্র্যাটেজি গ্রুপের সিনিয়র কাউন্সেল অ্যালিস মিলস বলছিলেন, প্রত্যেকেই একটি পরিবর্তন চাইছেন। কিন্তু তা শুরু করার শক্তি কারোরই নেই। প্রত্যেক প্রিমিয়ারকেই ক্ষতের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করতে হচ্ছে এবং কারো কারো রক্তক্ষরণ অন্যদের চেয়ে অনেক বেশি। পায়ের নিচের মাটি রক্ষা করা এবং মহামারির কারণে যা কিছু হারিয়েছেন তা ফিরিয়ে আনাই যে তাদের প্রধান লক্ষ্য এটা তারা সবাই জানেন।

দুই বছর আগে জাস্টিন ট্রুডোর কার্বন প্রাইসিং উদ্যোগের বিরুদ্ধে কনজার্ভেটিভ প্রিমিয়াররা যখন একজোট হয়েছিলেন, বর্তমান পরিস্থিতি তার থেকে যোজন যোজন দূরে। সর্বসম্মতভাবে তারা প্রদেশগুলোতে জ্বালানির ওপর চার্জ আরোপে লিবারেল সরকারের পরিকল্পনার সমালোচনা করেছিলেন। হয় তারা কার্বন-প্রাইসিং পরিকল্পনা চালু করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছিলেন অথবা এমন ব্যবস্থা চালু করেছিলেন ফেডারেল সরকারের কাছে যার অনুমোদনের প্রয়োজন ছিল না।

ম্যাকগিল ইউনিভার্সিটির রাষ্ট্রবিজ্ঞানের অধ্যাপক ড্যানিয়েল বেলান্ড বলেন, আলবার্টার প্রিমিয়ার জেসন কেনি এবং অন্টারিওর প্রিমিয়ার ডগ ফোর্ড কনজার্ভেটিভ প্রিমিয়ারদের প্রধানতম মুখ, কোভিড-১৯ সংকট মোকাবেলা করতে গিয়ে যারা তাদের ভাবমূর্তি খুইয়েছেন এবং বর্তমানে তারা সবচেয়ে কম জনপ্রিয় নেতা। তারা সফলভাবে মহামারি মোকাবেলায় ব্যর্থ হয়েছেন। জনমত অন্তত তাই বলছে।

রাজনৈতিক কৌসুলিরা এ ব্যাপারে একমত যে, প্রিমিয়ারদের প্রতি জনগণের ক্ষোভ আছে এবং ভোটাররা দেখতে চান যে, মহামারি নিয়ন্ত্রণে এসেছে। সেই সাথে অটোয়ার সঙ্গে প্রদেশগুলোর যুদ্ধ আর প্রত্যক্ষ করতে চান না তারা।

বিদ্যমান এই পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে কারা সুবিধাজনক অবস্থানে আছে? বেলান্ডের বিশ্বাস, সুবিধাটি ঘরে তুলবেন জাস্টিন ট্রুডো অথবা এনডিপি। আগামী নির্বাচনে একজন নেতাও যদি জাস্টিন ট্রুডোর জন্য হুমকি হয়ে দাঁড়ান বেলান্ডের মতে, তিনি হলেন কুইবেকের প্রিমিয়ার ফাসোয়াঁ লেগু। বেলান্ড বলেন, লেগুর জনপ্রিয়তা সত্ত্বেও লিবারেলরা কুইবেকে তাদের আসন সংখ্যা বাড়ানোর চেষ্টা করছেন। কুইবেকের এই প্রিমিয়ার ধর্মীয় পরিচয়সূচক পোশাক পরিধান বন্ধ করতে আনা বিল সম্পর্কে ট্রুডোর মন্তব্যের সমালোচনা করেছেন।

Related posts

ইরান ও ভেনিজুয়েলার মধ্যে ২০ বছরের সহযোগিতা চুক্তি স্বাক্ষর

razzak

রাজধানীতে ৩০৯টি অনিবন্ধিত মোবাইলফোন জব্দ, গ্রেপ্তার ৭

razzak

অন্তত একটি পুত্রসন্তান চান ৮০ শতাংশ ভারতীয়: জরিপ

razzak

Leave a Comment

Translate »