সেপ্টেম্বর ২৯, ২০২২
MIMS 24
আন্তর্জাতিক খেলাধুলা জাতীয় জীবনধারা সংগঠন সংবাদ

হারারের মাঠে শেষ হাসির প্রত্যাশায় বাংলাদেশ

খেলার সংবাদ :   একমাত্র টেস্টে বিশাল জয়ের পর তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে জিম্বাবুয়েকে হোয়াইটওয়াশ করেছে বাংলাদেশ। তিন ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচেও জিম্বাবুয়ানদের উড়িয়ে দিয়েছে টাইগাররা। তবে দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি হেরে সেই জয়যাত্রা থমকে গেছে। টেস্ট, ওয়ানডের মতো টি-টোয়েন্টি সিরিজও জিততে হলে সফরের শেষ ম্যাচটা জয়ের বিকল্প নেই বাংলাদেশের। টি-টোয়েন্টি সিরিজের শেষ ম্যাচে হারারের মাঠে শেষ হাসিটা হাসতে চায় বাংলাদেশ।

আগামীকাল সোমবার (২৫ জুলাই) হারারে স্পোর্টস ক্লাব মাঠে টি-টোয়েন্টি সিরিজের তৃতীয় অর্থাৎ সফরের শেষ ম্যাচটি খেলতে জিম্বাবুয়ের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। ম্যাচটা মাঠে গড়াবে বাংলাদেশ সময় বিকেল সাড়ে ৪টায়।

চলতি সফরে টানা পাঁচ ম্যাচ জিতে দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ২৩ রানে হেরেছিল বাংলাদেশ। তাতে সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে বাংলাদেশের বিপক্ষে আড়াই বছরেরও বেশি সময় পর জয়ের স্বাদ পেয়েছে জিম্বাবুয়ে। ফিল্ডিংয়ের কিছু ভুলের সুযোগ নিয়ে ১৬৬ রান তোলে প্রথমে ব্যাটিং করা জিম্বাবুয়ে। পরে শুরু থেকেই চালিয়ে খেলতে গিয়ে বারবার সীমানায় ক্যাচ হয়ে ফিরেছেন বাংলাদেশি ব্যাটাররা। ওই ম্যাচে আবারও ব্যর্থ বাংলাদেশের টপ অর্ডার। লম্বা ব্যাটিং লাইনআপের লোয়ার অর্ডারও পরে সেই ধাক্কা কাটিয়ে উঠতে পারেনি। সিরিজ জিততে হলে নিশ্চয় শুরুর দিকের ব্যাটিংয়ে উন্নতি করতে হবে বাংলাদেশকে।

টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ সে কথা বলেছিলেনও। হারের পর বাংলাদেশ দলপতি বলেছিলেন, ‘আমরা ব্যাটিং গ্রুপ হিসেবে জ্বলে উঠতে পারিনি। কোনো জুটি গড়তে পারিনি শুরুতে। যখন আপনি ১৬০+ রান তাড়া করবেন, তখন আপনার শুরুতে জুটি গড়তে হবে।’

তিন ম্যাচের সিরিজে ১-১ ব্যবধানের সমতা বলে আগামীকাল সিরিজের তৃতীয় ম্যাচটা অলিখিত ফাইনাল বলা চলে। ফাইনাল জিততে না পারলে দীর্ঘদিন পর আবারও জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজ হারতে হবে। মাহমুদউল্লাহ বললেন, সর্বোচ্চ চেষ্টা করবে তার দল। দ্বিতীয় ম্যাচে দ্রুত বেশ কয়েকটি উইকেট হারিয়ে দল বিপদে পড়েছিল, এমন ভুল আর যাতে না হয় সেই কথাও বলে রাখলেন টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক, ‘একটা ম্যাচ আছে, ফাইনাল ম্যাচ হিসেবেই খেলব। ম্যাচ জেতার সর্বোচ্চ চেষ্টা করব। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে এমন হয়। ভুল করে ফেললে ফিরে আসা কঠিন হয়ে যায়। পরের ম্যাচে এই ভুলের যেন পুনরাবৃত্তি না হয় সেই লক্ষ্যই থাকবে।’

তরুণ পেসার শরিফুল ইসলামও বললেন, জেতার মনোভাব নিয়েই কাল মাঠে নামবে বাংলাদেশ, ‘ইনশাআল্লাহ কালকে যেহেতু আমাদের জন্য ফাইনাল ম্যাচের মতো। কালকে যদি ব্যাটসম্যান, বোলিং, ফিল্ডিংয়ে নিজেদের সেরাটা দিতে পারি তাহলে সহজেই জিততে পারবো বলে আমার মনে হয়। প্রথম বল থেকে শেষ পর্যন্ত আমরা ইতিবাচক থাকব। দেখা যাক খেলা শেষে কী হয়। তবে এখন থেকে আমরা পজিটিভ আছি যে জিতবো। জেতার মনোভাব নিয়েই নামবো।’

মোস্তাফিজুর রহমানের ইনজুরিতে একাদশে সুযোগ পাওয়া শরিফুল প্রথম দুই টি-টোয়েন্টিতে পাঁচ উইকেট পেয়েছেন। ইনজুরির সঙ্গে লড়াই করতে থাকা মোস্তাফিজ কাল শেষ ম্যাচেও খেলতে পারবেন কিনা তা অনিশ্চিত। প্রথম টি-টোয়েন্টিতে ব্যাটিংয়ের সময় ব্যাথা পাওয়া লিটন দাস দ্বিতীয় ম্যাচে খেলতে পারেননি। কালকের ম্যাচেও ফর্মে থাকা লিটনকে নিয়ে শঙ্কা। তামিম ইকবাল, মুশফিকুর রহিমের মতো অভিজ্ঞরা নেই আগে থেকেই। তবে এতো অনুপস্থিতিতে শামীম পাটোয়ারীর অন্তর্ভূক্তি নিশ্বন্দেহে বাড়তি স্বস্তি।

দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে অভিষেকেই দুর্দান্ত পারফর্ম করেছেন তরুণ স্পিনিং অলরাউন্ডার। তার ১৩ বলে ২৯ রানের ইনিংসটি ছিল চোখ ধাঁধানো। সাকিব আল হাসান, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, আফিফ হোসেনরাও ছন্দে আছেন। রান পেয়েছেন সৌম্য সরকার, নাইম শেখ, নুরুল হাসান সোহানরা। ফলে আরেকটা সিরিজ জয়ের স্বপ্ন দেখাই যেতে পারে।

তবে জিম্বাবুয়েও যে ছেড়ে কথা বলবে না তা আলাদা করে না বললেও চলবে। বোর্ডের বিভিন্ন ইস্যুতে ডালমাটাল অবস্থায় চলতে থাকা দলটি হন্যে হয়ে মাঠের সাফল্য খুঁজছে। বাংলাদেশকে আরেকবার হারিয়ে সিরিজ জয়টা হতে পারে তাদের সেরা প্রাপ্তি। দারুণ ফর্মে আছেন সিকান্দার রাজা, রায়ান বার্ল, ব্লেসিং মুজারাবানির মতো কয়েকজন ক্রিকেটার।

কাল শেষ হাসি কাদের মুখে সোভা পায় সেটাই দেখার।

Related posts

এ বছরও প্রাথমিকে ‘অটো পাস’

razzak

‘প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা পেলে কালই স্কুল খুলতে পারি’

razzak

জার্মানির হামবুর্গে যেন এক টুকরো বাংলাদেশ

razzak

Leave a Comment

Translate »