এই মাত্র জাতীয় বাংলাদেশ ব্রেকিং

নৌকাডুবি: ২২ জনের মরদেহ উদ্ধার

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগরে ট্রলারডুবির ঘটনায় নিখোঁজ শিশু নাশরার (৩) মরদেহ উদ্ধার করেছে ডুবুরিরা। শনিবার সকাল পৌনে ১০টায় ট্রলারডুবির স্থল থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। এই ঘটনায় মোট ২২ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। উদ্ধার অভিযান অব্যাহত রয়েছে। এখনো অনেকেই নিখোঁজ রয়েছে।

গতকাল সন্ধ্যার এই নৌকাডুবির ঘটনায় শনিবার সকাল ৮টা থেকে আবার উদ্ধার অভিযান শুরু হয়। এ সময় শিশু নাশরার নিথর মরদেহ উদ্ধার করে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল। নাশরা ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা শহরের পৈরতলা এলাকার হারিছ মিয়ার মেয়ে।

বিজয়নগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মির্জা মোহাম্মদ হাসান জানান, দ্বিতীয় দিনের মতো উদ্ধার অভিযান অব্যাহত আছে। সব মিলিয়ে ২২ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

নৌকাটি যাত্রী নিয়ে জেলার বিজয়নগর উপজেলার চম্পকনগর থেকে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার শহরের আনন্দ বাজার ঘাটে আসছিল। শুক্রবার বিকাল সোয়া ৫টার দিকে বিপরীত দিক থেকে আসা বালুবোঝাই ট্রলারের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হলে যাত্রীবাহী নৌকাটি উল্টে সব যাত্রী নদীতে পড়ে যায়। ট্রলারে ৫০/৬০ জন যাত্রী ছিল বলে ধারণা করা হচ্ছে।

নিহতদের মধ্যে ১৭ জনের পরিচয় জানা গেছে। তারা হলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌর শহরের পৈরতলা এলাকার মোমেনা বেগম ও কাজল বেগম, দাতিয়ারা এলাকার ১২ বছরের তাসফিয়া মিম, সদর উপজেলার সাদেকপুর ইউনিয়নের আট বছরের তানভীর, চিলোকুট গ্রামের আট বছরের তাকুয়া, নরসিংসার গ্রামের সাত বছরের সাজিম ও ভাটপাড়া গ্রামের শারমিন।

বিজয়নগর উপজেলার ফতেহপুর গ্রামের আরিফ বিল্লাহ, বেড়াগাঁও গ্রামের মঞ্জু বেগম, ফরিদা বেগম ও তার ১০ বছরের মেয়ে মুন্নি ও কমলা বেগম, নূরপুর গ্রামের মিনারা বেগম, আদমপুর গ্রামের অঞ্জনী বিশ্বাস ও পরিমল বিশ্বাসের দুই বছরের মেয়ে তিথিবা বিশ্বাস এবং ময়মনসিংহের ঝর্ণা বেগম। এছাড়া পৈরতলা এলাকার হারিছ মিয়ার মেয়ে নাশরা।

Related posts

ভুয়া আগাম জামিন আদেশ তৈরিতে গ্রেফতার ঢাকা জজ কোর্টের আইনজীবী

Irani Biswash

সর্বকালের রেকর্ড ভেঙে ভারতীয় রুপির দরপতন

razzak

মঙ্গলের আকাশে সফল ভাবে উড়লো হেলিকপ্টার

Irani Biswash

Leave a Comment

Translate »