সেপ্টেম্বর ২৯, ২০২২
MIMS 24
জাতীয় জীবনধারা বাংলাদেশ

৪১ বছরের লক্করঝক্কর আমানত শাহ, ছিলো না ফিটনেসও

পাটুরিয়া ঘাটে ডুবে যাওয়া রো রো ফেরি আমনত শাহ ৪১ বছরেরও বেশি সময় ধরে চলাচল করছিল। ছিলো না ফিটনেস। বার বার ডকইয়ার্ডে নিয়ে মেরামত করা হতো। সম্প্রতি তলদেশ ফুটোও হয়েছিল। এরপরও লক্করঝক্কর এই ফেরি দিয়ে যানবাহন ও যাত্রী পারাপার করা হচ্ছিল।

অভ্যন্তরীণ নৌচলাচল অধ্যাদেশ অনুযায়ী, একটি নৌযানের নিবন্ধনের মেয়াদ ৩০ বছর হয়। বিশেষ জরিপের (ফিটনেস) মাধ্যমে এরপর দুবার পাঁচ বছর করে নিবন্ধনের মেয়াদ বাড়ানো যায়। তবে ৪০ বছরের বেশি সময় কোনোভাবেই কোনো নৌযান চলাচল করতে পারে না।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন করপোরেশনের (বিআইডব্লিউটিসি) নৌযানের তালিকা অনুযায়ী, ফেরি আমানত শাহ ১৯৮০ সালে তৈরি। ৩৩৫ জন যাত্রী ও ২৫টি যানবাহন বহন করতে পারে এটি। ৮০৬.৬০ টন ওজনের ফেরিটি সর্বোচ্চ ১০.২৫ নটিক্যাল মাইল গতিতে চলতে পারে।

জানা যায়, বুধবার টিপ নিয়ে দৌলতদিয়া থেকে পাটুরিয়া গিয়ে ভাসমান কারখানা মধুমতিতে ফেরিটি মেরামত করার কথা ছিল। কিন্ত তার আগেই ঘটে যায় দুর্ঘটনা। সকালে দৌলতদিয়া থেকে পাটুরিয়ার উদ্দেশে রওনা হওয়ার পর মাঝ নদী পার হওয়ার পর ফেরিতে পানি উঠতে শুরু করে। পরে ফেরিটি পাটুরিয়া ঘাটে নোঙর করা হয়। এরপর যানবাহন আনলোড হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ফেরিটি এক পাশে কাত হয়ে ডুবে যায়।

পাটুরিয়া ঘাটে তৃতীয় দিনের মতো উদ্ধার অভিযান শুরু করেছে উদ্ধারকারী জাহাজ হামজা কর্তৃপক্ষ। আজ শুক্রবার সকাল সাড়ে ৮টা থেকে উদ্ধার কাজ শুরু করা হয়। একই সঙ্গে উদ্ধার অভিযানে ফায়ার সার্ভিস, কোস্ট গার্ড এবং বিআইডাব্লিউটিএ এর ডুবুরি দলের কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে।

উদ্ধারকারী জাহাজ হামজার কমান্ডার এসএম ছানোয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, পাটুরিয়া ফেরিঘাটে ডুবে যাওয়া ফেরিতে তৃতীয় দিনের মতো উদ্ধার অভিযান শুরু হয়েছে। সবশেষ তথ্যানুযায়ী ডুবে যাওয়া ফেরিতে আরও চারটি পণ্যবাহী ট্রাক এবং কয়েকটি মোটরসাইকেল রয়েছে। সেগুলো উদ্ধারে অভিযান শুরু হয়েছে।

এদিকে দুর্ঘটনার পরপরই নারায়ণগঞ্জ থেকে পাটুরিয়া ফেরিঘাটের উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছে প্রত্যয় নামের উদ্ধারকারী জাহাজ। স্রোতের বিপরীতে জাহাজটি ঘণ্টায় মাত্র সাড়ে তিন থেকে পৌনে চার কিলোমিটার নৌপথ অতিক্রম করতে পারে। পাটুরিয়া থেকে নারায়ণগঞ্জের নৌপথ দূরত্ব প্রায় দুইশো কিলোমিটার। সেই হিসেব অনুযায়ী কবে নাগাদ উদ্ধারকারী জাহাজ পাটুরিয়া ঘাটে এসে পৌঁছাবে সে বিষয়ে স্পষ্ট কোনো মন্তব্য করতে পারেনি কর্তৃপক্ষ।

সবশেষ তথ্যানুযায়ী মুন্সিগঞ্জের পদ্মা-মেঘনা মোহনা এলাকায় রয়েছে প্রত্যয়। উদ্ধারকারী ওই জাহাজটি হামজার চেয়ে কয়েকগুণ বেশি শক্তিশালী। কাজেই উদ্ধার অভিযানে ওই জাহাজটি সংযুক্ত হলে উদ্ধার অভিযান সহজ হবে বলে জানান হামজার কমান্ডার ছানোয়ার হোসেন।

বুধবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে পাটুরিয়া ফেরিঘাটের ৫ নাম্বার পন্টুন এলাকায় এসে ১৪টি ট্রাক ও কিছু মোটরসাইকেল নিয়ে ডুবে যায় আমানত শাহ নামে বড় একটি ফেরি। এরপর গেলো দুই দিনে সেখান থেকে ১০টি ট্রাক ও একটি মোটরসাইকেল উদ্ধার করে হামজা কর্তৃপক্ষ। বাকী যানবাহন উদ্ধারে আজও তাদের উদ্ধার অভিযান চলমান রয়েছে।

Related posts

আজ কোটি ডোজ টিকা দেওয়ার লক্ষ্যমাত্রা

razzak

করোনায় আরও ১০ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৬৬৭৬

razzak

গত ১১ মাসে ধর্ষণের শিকার ১ হাজার ১৯৪ নারী

razzak

Leave a Comment

Translate »