আন্তর্জাতিক এই মাত্র এই মাত্র পাওয়া জীবনধারা

এখনও সৈন্য প্রত্যাহার দেখিনি, বললেন ইউক্রেন প্রেসিডেন্ট

রাশিয়া ও ইউক্রেন সীমান্তে এই মুহূর্তে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। যেকোনও সময় ইউক্রেনে হামলা চালাতে পারে রাশিয়া- পশ্চিমাদের এমন আশঙ্কার মাঝে সীমান্তে থেকে কিছু সৈন্য প্রত্যাহারের ঘোষণা দেয় রুশ কর্তৃপক্ষ।

তবে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি বলেছেন, রাশিয়া যে সীমান্ত থেকে তাদের সৈন্য প্রত্যাহার করছে, এমন কোন কিছু তিনি এখনও দেখেননি।
ইউক্রেনের সামরিক বাহিনীর মহড়া দেখার সময় তিনি বলেন, যখন এরকম কোনও সেনা প্রত্যাহার শুরু হবে, তখন সেটা সবার চোখে ধরা পড়ার কথা।

ন্যাটোর মহাসচিব এবং পশ্চিমা নিরাপত্তা কর্মকর্তারাও বলেছেন, রাশিয়ার সেনাদল যে ঘাঁটিতে ফিরে যাচ্ছে, সেরকম লক্ষণ খুব কমই দেখা যাচ্ছে।

সীমান্ত থেকে সৈন্য প্রত্যাহারের ব্যাপারে রাশিয়ার বক্তব্যের পর যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন যে বক্তব্য দিয়েছেন তাতে মনে হচ্ছে সীমান্ত এলাকায় রাশিয়া তাদের সৈন্য সংখ্যা আরও বৃদ্ধি করেছে।

এতদিন ইউরোপ ও যুক্তরাষ্ট্র ধারণা করছিল যে ইউক্রেনের সীমান্তে এক লাখের মতো রুশ সৈন্য জড়ো করা হয়েছে। ইউক্রেনে সামরিক আগ্রাসন চালানোই তাদের লক্ষ্য।

কিন্তু প্রেসিডেন্ট বাইডেন এখন বলছেন, সীমান্তে দেড় লাখ রুশ সৈন্য মোতায়েন করা হয়েছে।

জাতির উদ্দেশ্যে দেওয়া তার এই বক্তব্য টেলিভিশনে প্রচারিত হয়েছে। এতে তিনি বলেছেন, ইউক্রেনে রাশিয়ার হামলার “এখনও জোর সম্ভাবনা রয়েছে,” এবং যদি সেরকম কিছু হয় তাহলে তার “মানবিক মূল্য হবে অনেক বেশি।”

“আমাদের বিশ্লেষকরা ইঙ্গিত দিচ্ছেন যে তাদের অবস্থান এখনও হুমকি হিসেবেই রয়ে গেছে,” বলেন প্রেসিডেন্ট বাইডেন। তিনি বলেন, এরকম পরিস্থিতি মোকাবেলা করতে তার দেশ পুরোপুরি প্রস্তুত। সূত্র: বিবিসি

Related posts

ফ্রান্সের সঙ্গে বাংলাদেশের প্রতিরক্ষা সহযোগিতার সম্মতিপত্র সই

razzak

যুক্তরাষ্ট্রের ফের করোনা পরিস্থিতি ভয়াবহ, একদিনে ১২০০ প্রাণহানি

razzak

সৌদি আরবে বাংলাদেশি যুবক খুন

razzak

Leave a Comment

Translate »