আন্তর্জাতিক এই মাত্র পাওয়া জীবনধারা

নিষিদ্ধ ভ্যাকুয়াম বোমা ব্যবহার করছে রাশিয়া, দাবি ইউক্রেনের

মানবাধিকার গোষ্ঠী এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ইউক্রেনের রাষ্ট্রদূত বলেছেন, রাশিয়া ক্লাস্টার বোমা এবং নিষিদ্ধ ভ্যাকুয়াম বোমা ব্যবহার করে ইউক্রেনে হামলা চালিয়েছে। এই দুই অস্ত্রই আন্তর্জাতিক মহলে নিন্দিত। মঙ্গলবারএক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম রয়টার্স।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ইউক্রেনের রাষ্ট্রদূত ওকসানা মার্কারোভা সাংবাদিকদের বলেছেন যে, তারা আজ ভ্যাকুয়াম বোমা ব্যবহার করেছে, যা আসলে জেনেভা কনভেনশন দ্বারা নিষিদ্ধ।

তিনি আরো বলেন, রাশিয়া ইউক্রেনে যে ধ্বংসযজ্ঞ চালাতে চাইছে তা অনেক বড়। অবশ্য নিষিদ্ধ ভ্যাকুয়াম বোমা ব্যবহার করে হামলা চালানোর বিষয়ে ইউক্রেনের এই অভিযোগ স্বাধীনভাবে যাচাই করা যায়নি।

অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল এবং হিউম্যান রাইটস ওয়াচ উভয়ই বলেছে যে রুশ বাহিনী ব্যাপকভাবে নিষিদ্ধ ক্লাস্টার অস্ত্র ব্যবহার করেছে বলে মনে হচ্ছে, অ্যামনেস্টি তাদের অভিযুক্ত করেছে যে তারা উত্তর-পূর্ব ইউক্রেনের একটি প্রিস্কুলে হামলা চালিয়েছে।

ভ্যাকুয়াম বোমায় বা থার্মোবারিক অস্ত্রগুলোতে প্রচলিত গোলাবারুদ ব্যবহার করা হয় না। উচ্চ-তাপমাত্রার অত্যন্ত শক্তিশালী বিস্ফোরণ এবং চাপ তরঙ্গ তৈরি করতে থার্মোবারিক অস্ত্র বা ভ্যাকুয়াম বোমাগুলো সাধারণত বায়ু থেকে অক্সিজেন টেনে নেয়। প্রকৃতপক্ষে এই ধরনের অস্ত্রগুলোর বিস্ফোরণের মাধ্যমে সৃষ্ট তরঙ্গ প্রচলিত অন্য ঘনীভূত বিস্ফোরকের তুলনায় উল্লেখযোগ্যভাবে দীর্ঘস্থায়ী হয়ে থাকে।

উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার ইউক্রেনে হামলা চালায় রাশিয়া। টানা কয়েকদিন ধরেই দুপক্ষের মধ্যে লড়াই চলছে। এরইমধ্যে প্রতিবেশী দেশ বেলারুশের সীমান্তে যুদ্ধবিরতি নিয়ে মস্কো-কিয়েভ আলোচনা শেষ হওয়ার কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই এই শহর দু’টিতে রুশ হামলা শুরুর দাবি করল ইউক্রেন।

Related posts

৫০ বছরে বাংলাদেশের অর্জন অনবদ্য: জাস্টিন ট্রুডো

Mims 24 : Powered by information

৪ হাজার বিলাসবহুল গাড়ি নিয়ে মাঝ সাগরে পুড়ছে জাহাজ

razzak

কাজে ফেরেনি ১৫ ভাগ শ্রমিক, সংকটে পোশাক খাত

razzak

Leave a Comment

Translate »