এই মাত্র এই মাত্র পাওয়া জাতীয় জীবনধারা বাংলাদেশ

ভারতে বর্বর নির্যাতনের শিকার সেই তরুণীকে বাংলাদেশে হস্তান্তর

ভারতের বেঙ্গালুরুতে গত বছর ধর্ষণ ও নির্যাতনের ঘটনায় আলোচিত ভুক্তভোগী সেই তরুণীকে বাংলাদেশে হস্তান্তর করা হয়েছে।

শনিবার সন্ধ্যায় বেনাপোল সীমান্ত দিয়ে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) তেজগাঁও বিভাগের একটি দলের কাছে তাকে হস্তান্তর করে ভারতীয় আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

তেজগাঁও বিভাগের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (এডিসি) হাফিজ আল ফারুক গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, ভিক্টিমকে আমাদের জিম্মায় দেওয়া হয়েছে। এখন ঢাকার পথে রয়েছে। রোববার ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশনা মেনে এ বিষয়ে পরবর্তী পদক্ষেপ নেয়া হবে।

এদিকে গতকাল শুক্রবার ঐ ঘটনায় টিকটক হৃদয়সহ অভিযুক্ত ৭ বাংলাদেশিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছে দেশটির আদালত।

দক্ষিণ ভারতের রাজ্য কর্নাটকের রাজধানী বেঙ্গালুরুর একটি বিশেষ আদালত এ রায় দেন। রায়ে আরো চার আসামিকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। সাজাপ্রাপ্ত ১১ জনের মধ্যে ৩ জন নারী। এদের সবাই বাংলাদেশি। খবর টাইমস অব ইন্ডিয়ার।

দণ্ড পাওয়া ব্যক্তিরা হলেন- সবুজ, টিকটিক হৃদয় ওরফে হৃদয় বাবু, রাফসান মণ্ডল, রকিবুল ইসলাম সাগর, মোহাম্মদ বাবু, ডালিম ও আজিম। তাদের প্রত্যেককেই যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। তানিয়া নামে মামলার আরেক আসামিকে দেওয়া হয়েছে ২০ বছরের কারাদণ্ড।

এছাড়া আরেক আসামি জামালকে দেওয়া হয়েছে ৫ বছরের কারাদণ্ড এবং অপর দুই আসামি নুসরাত ও কাজলকে ৯ মাস করে কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

গত বছরের ২৭ মে বেঙ্গালুরুর রামামূর্তিনগরে ২২ বছর বয়সী এক বাংলাদেশি তরুণী নির্যাতন ও সংঘবদ্ধ ধর্ষণের শিকার হন। ঐ নির্যাতনের ভিডিও ভাইরাল হওয়ার পর বৈশ্বিক গণমাধ্যমেও এ নিয়ে শুরু হয় ব্যাপক আলোচনা।

Related posts

লকডাউনে দৃষ্টি প্রতিবন্ধী ভিক্ষুকের ভিক্ষা মিলছে না

Irani Biswash

ইউক্রেনকে সমর্থনের আগ্রহ হারাচ্ছে পশ্চিমারা!

razzak

বাংলাদেশের পরিস্থিতি শ্রীলঙ্কার মতো হওয়ার সুযোগ নেই

razzak

Leave a Comment

Translate »