ডিসেম্বর ৭, ২০২২
MIMS 24
আন্তর্জাতিক এই মাত্র টেকনোলজি ব্রেকিং

না ভেঙে, টেনে সরানো হলো আস্ত দোতলা বাড়ি

শখ করে নিজের মনের মতো একটি দোতলা বাড়ি তৈরি করেছিলেন কৃষক সুখিন্দর সিং সুখী।  দোতলা বাড়িটি নির্মাণে খরচ হয়েছিল দেড় কোটি রুপি। কিন্তু সেই বাড়ি ভাঙার নির্দেশ দিয়েছে সরকার। তাকে জানানো হয়, সরকারের একটি প্রকল্পের অধীনে তাঁর জমির ওপর দিয়ে নির্মাণ করা হবে মহাসড়ক, ভেঙে ফেলা হবে বাড়িটি। শখের বাড়ির এমন ভবিষ্যৎ পরিণতি মানতে পারেননি সুখী। শেষমেশ আস্ত বাড়িই টেনে দূরে সরিয়ে নিচ্ছেন তিনি।

ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের পাঞ্জাব রাজ্যে। ভারতের বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমের খবরে বলা হয়, পাঞ্জাব রাজ্যের সাঙ্গরুর জেলার রোশানওয়ালা গ্রামের ভেতর দিয়ে নির্মাণ করা হবে দিল্লি-অমৃতসর-কাতরা এক্সপ্রেসওয়ে। মহাসড়কটি হরিয়ানা, পাঞ্জাব, জম্মু ও কাশ্মীরের ভেতর দিয়ে যাবে। এসব এলাকায় চলাচলকারী মানুষের দুর্দশা কমাতে ও যাত্রার সময় বাঁচাতে প্রকল্পটি হাতে নিয়েছে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার।

মহাসড়কটি নির্মাণে বাড়িটি বাধা হয়ে দাঁড়ালে আস্ত বাড়িটিই ৫০০ ফুট দূরে সরিয়ে নেওয়ার পরিকল্পনা নেন সুখী।  তার এমন চিন্তা ভাবনা বাস্তবায়িত হচ্ছে দেখে রীতিমতো হতবাক এলাকাবাসী। জানা গেছে, এরই মধ্যে বাড়িটি ২৫০ ফুট সরিয়ে নেয়া হয়েছে। আর এ কাজে তাঁকে সহায়তা করছেন গ্রামের নির্মাণ শ্রমিকেরা। বাড়িটি সরানোর একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। সেখানে দেখা যায়, চাকার মতো দেখতে কিছু যন্ত্রাংশের সাহায্যে ফসলি জমির ওপর দিয়ে বাড়িটি টেনে নেয়া হচ্ছে।

সরকারের কাছ থেকে ক্ষতিপূরণ পেলেও নিজের বাড়ি না ভেঙে সরিয়ে নিচ্ছেন সুখী। সুখী বলেন, ‘বাড়িটি নির্মাণ করতে আমার দুই বছর লেগেছে। খরচ হয়েছে প্রায় দেড় কোটি রুপি। এই বাড়ি নির্মাণ করা আমার স্বপ্ন ছিল। তাই আমি সেটি ভেঙে নতুন বাড়ি নির্মাণ করতে চাইনি।’

এবারই প্রথম নয়, এ বছর মে মাসে কলকাতার বালুরঘাট এলাকায় ২০০০ স্কয়ার ফিটের দোতলা বাড়ি সরিয়ে নিয়েছিলেন ব্যবসায়ী সুজিত মহন্ত। জাতীয় সড়ক সম্প্রসারণের পথে বাঁধা হয়ে দাঁড়ালে সুজিতও তার বাড়িটি সরিয়ে নিয়েছিলেন। তবে সুজিত তার বাড়িটি সরিয়ে নিয়েছিলেন প্রায় ৬০ ফুট দূরে।

এভাবে পুরো বাড়ি টেনে সরিয়ে ফেলার ঘটনা সচরাচর দেখা যায়না। আর সেজন্যই হয়তো এ ধরণের উদ্ভট ঘটনা সংবাদের শিরোনাম হয়।

Related posts

২২ বছরের পলাতক জীবনে ইমাম, শিক্ষক, চিকিৎসক জঙ্গি এনামুল

razzak

আরও টিকা আনার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে: হাছান মাহমুদ

Irani Biswash

ভারতের সঙ্গে স্থলসীমান্ত বন্ধের মেয়াদ বেড়েছে

Irani Biswash

Leave a Comment

Translate »