ফেব্রুয়ারী ২, ২০২৩
MIMS 24
আন্তর্জাতিক এই মাত্র এই মাত্র পাওয়া ক্রয় বিক্রয় জীবনধারা বিনোদন ব্রেকিং ব্রেকিং নিউজ

মিস ইউনিভার্স অরগানাইজেশন কিনে নিলেন ট্রান্সজেন্ডার নারী

যে কোম্পানির আয়োজনে গত সাত দশক ধরে মিস ইউনিভার্স প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে, সেই মিস ইউনিভার্স অরগানাইজেশন এর মালিকানা বদল হয়েছে। মোটা অঙ্কের বিনিময়ে এই অক্টোবরে মিস ইউনিভার্স অর্গানাইজেশন কিনে নিয়েছেন এক থাই ব্যবসায়ী, যিনি ট্রান্সজেন্ডার নারী হিসেবে নিজের পরিচয় দেন।

বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যম জানায়, ২ কোটি ডলারে মিস ইউনিভার্স অরগানাইজেশন কিনে নিয়েছেন থাই মিডিয়া টাইকুন, ব্যবসায়ী ও ট্রান্সজেন্ডারদের অধিকার বিষয়ক আইনজীবী জাকাপং আনে জাকরাজুটাটিপ।

জাকাপং বিশ্ববিখ্যাত প্রতিষ্ঠান জেকেএম গ্লোবাল গ্রুপের সিইও এবং প্রতিষ্ঠানটির সবচেয়ে বড় শেয়ার হোল্ডার। থাইল্যান্ডে বিভিন্ন রিয়েলিটি শো আয়োজনের পাশাপাশি অভিনয় জগতের সঙ্গেও যুক্ত তিনি। সমাজে ট্রান্সজেন্ডারদের অধিকার রক্ষায় লাইফ ইন্সপায়ার্ড ফর থাইল্যান্ড ফাউন্ডেশন নামে একটি সংগঠন গড়ে তুলেছেন জাকাপং, কাজ করছেন তাদের আইনি অধিকার নিয়েও।

সংস্থাটির মালিকানা নেয়াকে নিজের পোর্টফোলিওতে একটি কৌশলগত সংযোজন বলে উল্লেখ করেছেন জাকাপং। মিস ইউনিভার্সের ধারণা ও নীতিকে এশিয়া পর্যন্ত পৌঁছে দিতে চান তিনি। প্রতিষ্ঠানটির মালিকানা হস্তান্তর হওয়ার পরপরই শেয়ারের দাম অন্তত ১০ শতাংশ পর্যন্ত বেড়ে গেছে বলে জানা যায়।

১৯৯৬ থেকে ২০১৫ সাল পর্যন্ত মিস ইউনিভার্স অরগানাইজেশন এর মালিকানায় অংশীদারিত্ব ছিল সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের। ২০১৫ সালের নির্বাচনী প্রচারে অবৈধ অভিবাসীদের সম্পর্কে ট্রাম্পের এক মন্তব্যের জেরে দুই টেলিভিশন স্টেশন প্রতিযোগিতাটি সম্প্রচার না করার সিদ্ধান্ত নেয়।

সাবেক এক মিস ইউনিভার্সকে ‘মিস পিগি’ বলেছিলেন ট্রাম্প। এছাড়াও নারীদের নিয়ে বিভিন্ন আপত্তিকর মন্তব্যের জন্য তুমুল সমালোচনায় থাকা ট্রাম্প তখন ২০১৫ সালে এর মালিকানা ছেড়ে দেন।

মিস ইউনিভার্স হলো বার্ষিক ভিত্তিতে আয়োজিত আন্তর্জাতিক সৌন্দর্য প্রতিযোগিতা। মিস ইউনিভার্স অর্গানাইজেশন এ প্রতিযোগিতার আয়োজন করে থাকে। ৭১ বছর ধরে চলে আসা প্রতিযোগিতাটি এখন সম্প্রচার হয় বিশ্বের ১৬০টিরও বেশি দেশে।

জাকাপং এর হাতে কোম্পানির কর্তৃত্ব আসায় এখন মিস ইউনিভার্স প্রতিযোগিতায় বড় ধরনের পরিবর্তন আসতে যাচ্ছে বলে জানিয়েছে বিবিসি।

আয়োজকরা জানান, আগামী বছর থেকে বিবাহিত নারী এবং মায়েরাও এ প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে পারবেন। এতদিন কেবল অবিবাহিত এবং সন্তানহীন নারীরাই মিস ইউনিভার্স প্রতিযোগিতায় প্রতিযোগী হতে পারতেন।

উল্লেখ্য, ভারত থেকে এখনও পর্যন্ত ‘মিস ইউনিভার্স’-এর মুকুট উঠেছে তিনজনের মাথায়। ১৯৯৪ সালে সুস্মিতা সেন, ২০০০ সালে লারা দত্ত এবং ২০২১ সালে হরনাজ সান্ধু।

সে যাই হোক, মিস ইউনিভার্স নারীদের আন্তর্জাতিক সৌন্দর্য প্রতিযোগিতা আর সেই প্রতিযোগী প্রতিষ্ঠানের মালিক এখন একজন ট্রান্সজেন্ডার নারী।

Related posts

করোনা সময়ে বেড়েছে আলু রফতানি

Irani Biswash

উল্লেখযোগ্য সেনা নিহত হওয়ার কথা স্বীকার রাশিয়ার

razzak

বিশ্বে প্রথম শিশুদের জন্য করোনা টিকা বাধ্যতামূলক করল কোস্টারিকা

razzak

Leave a Comment

Translate »