ফেব্রুয়ারী ২, ২০২৩
MIMS 24
অপরাধ আইন ও বিচার আন্তর্জাতিক এই মাত্র এই মাত্র পাওয়া ব্রেকিং ব্রেকিং নিউজ

মিয়ানমার সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগে জার্মানির আদালতে মামলা

মানবাধিকার গ্রুপ ‘ফর্টিফাই রাইটস’ এবং মিয়ানমারের ১৬ জন নাগরিক জার্মানির একটি আদালতে মিয়ানমার সামরিক জান্তার বিরুদ্ধে গণহত্যা, যুদ্ধাপরাধ ও মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগ দায়ের করেছে।

বিশ্বের বিভিন্ন দেশে বসবাসরত মিয়ানমারের এই ১৬ জনের মধ্যে রয়েছে রোহিঙ্গা, প্রভাবশালী বর্মী ও সংখ্যালঘু চিন সম্প্রদায়সহ মিয়ানমারের বিভিন্ন নৃগোষ্ঠীর সদস্য।

বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যম জানায়, মিয়ানমারে দুই বছর আগে হওয়া সামরিক অভ্যুত্থানের পর থেকে দেশটির নাগরিকদের ওপর নৃশংসতা এবং রোহিঙ্গা মুসলিমদের ওপর গণহত্যার পরিপ্রেক্ষিতে এ অভিযোগে দায়ের করা হয়। ফর্টিফাই রাইটস মঙ্গলবার (২৪ জানুয়ারি) মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে।

মামলার নেতৃত্ব দানকারী গ্রুপ ফর্টিফাই রাইটস জানায়, ২১৫ পৃষ্ঠার যে অভিযোগপত্র জমা দেয়া হয়েছে সেটা তৈরি করা হয়েছে ২০১৩ সাল থেকে ফর্টিফাই রাইটস পরিচালিত এক হাজারেরও বেশি মানুষের সাক্ষাৎকার এবং মিয়ানমার সেনাবাহিনীর ফাঁস হওয়া রেকর্ডের ওপর ভিত্তি করে। বিশেষ করে ২০১৭ সালে মিয়ানমার সেনাবাহিনী বল প্রয়োগ করে সাত লাখ ৪০ হাজারের বেশি রোহিঙ্গাকে দেশ ছাড়তে বাধ্য করেছে, যা অভিযোগকারীরা তাঁদের আবেদনে উল্লেখ করেছেন।

অভিযোগকারীরা মনে করেন, মিয়ানমারের সেনাবাহিনীর পরিকল্পিতভাবে হত্যা, ধর্ষণ, নির্যাতন, কারারুদ্ধ, গুম এবং নির্যাতন, গণহত্যা ও মানবতার বিরুদ্ধে অপরাধ যুদ্ধাপরাধের শামিল। মামলাটি জার্মানির ফেডারেল পাবলিক প্রসিকিউটর আদালতে দায়ের করা হয়েছে, যে আদালত বিশ্বের যেকোনো স্থানে সংঘটিত গুরুতর অপরাধ বিচারের অধিকার রাখে।

গণমাধ্যমে প্রকাশিত খবরে বলা হয়েছে, গণহত্যা, যুদ্ধাপরাধ ও মানবতার বিরুদ্ধে অপরাধের এই মামলা আদালত আমলে নিয়েছেন। সে অনুযায়ী, জার্মানির কার্লসরুহে শহরে অবস্থিত ফেডারেল প্রসিকিউটর অফিস রোহিঙ্গাসহ অন্নান্ন জাতিগোষ্ঠীর ওপর সংঘটিত গণহত্যা এবং ২০২১ সালের ফেব্রুয়ারিতে সামরিক বাহিনী ক্ষমতা দখলের পর থেকে সংঘটিত অপরাধ তদন্ত করবে।

এ বিষয়ে ফর্টিফাই রাইটসের নির্বাহী পরিচালক ম্যাথিউ স্মিথ বলেছেন, আন্তর্জাতিক মনোযোগ সত্ত্বেও মিয়ানমারের সেনাবাহিনী এখনো পূর্ণ দায়মুক্তি উপভোগ করছে। এর বিহিত করতে হবে। একই সঙ্গে বিষয়টি মীমাংসা করতে হবে।

জার্মানির সংবাদমাধ্যম ডের স্পিগেল ও এফেংঙ্গলিস প্রেস সার্ভিস এই মামলার খবর প্রকাশ করে জানিয়েছে, মিয়ানমারে সামরিক জান্তা আগামী সপ্তাহে তাদের অভ্যুত্থানের দ্বিতীয় বার্ষিকী পালন করবে। এই জান্তা দেশটিতে তাদের বিরোধীদের শক্ত হাতে দমন করছে। বিরোধীদের ওপর হামলা ও কঠোর নির্যাতনের খবর পাওয়া যাচ্ছে।

এদিকে জার্মানিতে যে অভিযোগ করা হয়েছে সে বিষয়ে জানতে মিয়ানমারের জান্তা সরকারের এক মুখপাত্রের সঙ্গে কথা বলার চেষ্টা করে রয়টার্স; কিন্তু কল রিসিভ হয়নি। তবে এর আগে দেশটির সেনাবাহিনী মানবাধিকার লঙ্ঘনের এ ধরনের অভিযোগ অস্বীকার করেছে। মন্তব্যের জন্য তাৎক্ষণিকভাবে মিয়ানমারের জার্মান দূতাবাসের সঙ্গে যোগাযোগ করা যায়নি বলে জানিয়েছে সংবাদ সংস্থাটি।

Related posts

রিমোট কন্ট্রোলড অস্ত্র দিয়ে ইরানের পরমাণু বিজ্ঞানীকে হত্যা করেছে মোসাদ

razzak

বাংলাবাজার-শিমুলিয়া রুট: পদ্মা পার হতে লঞ্চের বিকল্প নেই

razzak

ইউরোপজুড়ে টিকাবিরোধী বিক্ষোভে হাজার হাজার মানুষ

razzak

Leave a Comment

Translate »