আন্তর্জাতিক এই মাত্র এই মাত্র পাওয়া জাতীয় জীবনধারা ব্রেকিং ব্রেকিং নিউজ স্বাস্থ্য

চিকুনগুনিয়ার প্রথম টিকার অনুমোদন দিলো যুক্তরাষ্ট্র

মশাবাহিত ভাইরাস জ্বর চিকুনগুনিয়া প্রতিরোধে বিশ্বে প্রথম ভ্যাকসিন বা টিকার অনুমোদন দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। বৃহস্পতিবার (৯ নভেম্বর) মার্কিন খাদ্য ও ওষুধ প্রশাসন (এফডিএ) ইক্সচিক (Ixchiq) নামের এই টিকার অনুমোদন দেয়।

অনুমোদন দেওয়া টিকাটি এক ডোজ ব্যবহার করা হবে। এটির প্রস্তুতকারক কোম্পানি হলো ইউরোপভিত্তিক ওষুধ ও টিকা প্রস্তুতকারী কোম্পানি ভালনেভা। টিকাটি কেবল প্রাপ্ত বয়স্কদের জন্য সুপারিশ করা হয়েছে। এটিকে ফাস্ট ট্রাক ও যুগান্তকারী আবিষ্কার হিসেবে দেখা হচ্ছে।

এরই মধ্যে তিন পর্যায়ের মেডিকেল ট্রায়ালে এই টিকার কার্যকারিতা পরীক্ষা করেছে ভালনেভা। সেসব ট্রায়ালে প্রায় ৩ হাজার ৫০০ জন স্বেচ্ছাসেবী অংশগ্রহণ করেছেন। এর পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া হিসেবে মাথাব্যথা, অবসাদ, পেশি ও অস্থিসন্ধিতে ব্যথা, জ্বর ও বমি বমি ভাব হতে দেখা গেছে।

চিকুনগুনিয়া একটি ভাইরাস, যা মশার কামড়ের মাধ্যমে মানুষের মধ্যে ছড়ায়। চিকুনগুনিয়ায় আক্রান্তদের উপসর্গ হলো জ্বর ও অস্থিসন্ধিতে ব্যথা। আফ্রিকা, দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া ও আমেরিকার গ্রীষ্মমণ্ডলীয় এবং উপক্রান্তীয় অঞ্চলে চিকুনগুনিয়ার প্রকোপ বেশি। চিকুনগুনিয়াকে ‘উদীয়মান বৈশ্বিক স্বাস্থ্য ঝুঁকি’ হিসেবে উল্লেখ করেছে এফডিএ।

ডেঙ্গু ও জিকার মতো চিকুনগুনিয়াও এডিস প্রজাতির মশার কামড়ের মাধ্যমে ছড়ায়। এই রোগ প্রথম ১৯৫২ সালে আফ্রিকায় দেখা যায়। পরে ভারত, শ্রীলঙ্কা, থাইল্যান্ড, মিয়ানমার ও ইন্দোনেশিয়ার মতো এশিয়ার বিভিন্ন দেশে এর বিস্তার হয়।

বাংলাদেশে ২০০৮ সালে রাজশাহী ও চাঁপাইনবাবগঞ্জে চিকুনগুনিয়া ভাইরাসের প্রার্দুভাব দেখা যায়। এরপর ২০০৯ থেকে ২০১২ সাল পর্যন্ত ঢাকার বাইরে কয়েকটি এলাকায় পর্যায়ক্রমে চিকুনগুনিয়া রোগী পাওয়া যায়। পরে ২০১৭ সালেও বাংলাদেশে চিকুনগুনিয়া আঘাত হানে।

ডেঙ্গুর মতো প্রাণঘাতী অবশ্য নয় চিকুনগুনিয়া। যেখানে ডেঙ্গুতে মৃত্যুহার প্রতি ১০০ জনে ৫ জন, সেখানে চিকুনগুনিয়ায় প্রতি এক হাজারে ১ জন মারা যান। তবে প্রাণঘাতী না হলেও এই রোগটি ব্যাপক শারীরিক যন্ত্রণা দিতে সক্ষম। চিকুনগুনিয়ায় আক্রান্ত রোগীরা রোগ সেরে যাওয়ার পরেও কয়েক মাস কিংবা অনেকক্ষেত্রে কয়েক বছর পর্যন্ত অস্থিসন্ধি বা গিঁটে তীব্র ব্যথা বোধ করেন। এছাড়াও দীর্ঘমেয়াদে শারীরিক দুর্বলতা, অবসাদ ও অন্যান্য শারীরিক সমস্যার জন্য দায়ী চিকুনগুনিয়া।

এফডিএ এক বিবৃতিতে জানায়, বয়স্ক লোকজন এবং আগে থেকে রোগাক্রান্ত মানুষ চিকুনগুনিয়ায় সংক্রমিত হয়ে দীর্ঘমেয়াদি শারীরিক জটিলতায় পড়তে পারে। এই রোগের প্রথম টিকার অনুমোদন দেওয়া হলো। এটি চিকুনগুনিয়া চিকিৎসার ক্ষেত্রে যুগান্তকারী আবিষ্কার।

Related posts

সংক্রমণ বাড়লে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান আবার বন্ধ: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

razzak

ছুটির দিনগুলো ও কিছু ভাবনা

Mims 24 : Powered by information

নিপীড়িত ফিলিস্তিনের পাশে থাকবে মালয়েশিয়া

Irani Biswash

Leave a Comment

Translate »