আন্তর্জাতিক এই মাত্র এই মাত্র পাওয়া ব্রেকিং ব্রেকিং নিউজ

গাজায় যুদ্ধবিরতির আহবান জানিয়ে নিরাপত্তা পরিষদে প্রস্তাব পাস

ফিলিস্তিনের অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকায় অবিলম্বে যুদ্ধবিরতির আহবান জানিয়ে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে একটি প্রস্তাব পাস হয়েছে। সোমবার (২৫ মার্চ) প্রস্তাবটি পাস হয়। এতে গাজায় হামাস ও ইসরায়েলের মধ্যে চলমান যুদ্ধে অবিলম্বে যুদ্ধবিরতি এবং সব জিম্মির শর্তহীন মুক্তির কথা বলা হয়েছে।

১৫ সদস্যের নিরাপত্তা পরিষদের ১৪টি দেশ প্রস্তাবের পক্ষে ভোট দিয়েছে। ইসরায়েলের প্রধান মিত্র যুক্তরাষ্ট্র এদিন তার আগের অবস্থান পরিবর্তন করে ভেটো দেয়ার বদলে ভোট দেয়া থেকে বিরত ছিল।

নিরাপত্তা পরিষদের অস্থায়ী ১০টি সদস্যদেশ এ প্রস্তাবটি তুলেছিল। দেশগুলো হল আলজেরিয়া, সিয়েরা লিওন, মোজাব্বিক, কোরিয়া, জাপান, স্লোভেনিয়া, গায়ানা, ইকুয়েডর, মাল্টা ও সুইজারল্যান্ড। প্রস্তাবে ভোটদানে বিরত ছিল যুক্তরাষ্ট্র। ১৫ সদস্যের (৫ স্থায়ী ও ১০ অস্থায়ী সদস্য) নিরাপত্তা পরিষদের বাকি সব সদস্য প্রস্তাবের পক্ষে ভোট দিয়েছে। যুক্তরাষ্ট্র ছাড়া নিরাপত্তা পরিষদের স্থায়ী অপর চার সদস্য দেশ হল চীন, রাশিয়া, ফ্রান্স ও যুক্তরাজ্য।

গাজায় যুদ্ধবিরতির আহবান জানিয়ে নিরাপত্তা পরিষদে প্রস্তাব পাসের চেষ্টা আগেও কয়েকবার করা হয়েছে। তবে যুক্তরাষ্ট্রের ভেটো ক্ষমতা প্রয়োগের কারণে সেগুলো আটকে যায়। সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষ থেকেও যুদ্ধবিরতির আহবান জানিয়ে একটি প্রস্তাব তোলা হয়েছিল। তবে সেই প্রস্তাবে ইসরায়েলের পক্ষে যায় উল্লেখ করে তাতে ভেটো দেয় রাশিয়া ও চীন। এরপর এই প্রথম জাতিসংঘের সর্বোচ্চ পর্ষদ নিরাপত্তা পরিষদে যুদ্ধবিরতির আহবান সংবলিত প্রস্তাব পাস হলো।

নিরাপত্তা পরিষদে প্রস্তাবটি পাসের পরপরই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম এক্সে বার্তা দিয়েছেন জাতিসংঘের মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস। সেই বার্তায় পাস হওয়া প্রস্তাবটি বাস্তবায়নের ওপর জোর দিয়েছেন তিনি।

জাতিসংঘ মহাসচিব বলেন, ‘দীর্ঘ অপেক্ষার পর অবশেষে গাজায় জরুরিভিত্তিতে যুদ্ধবিরতি এবং সব জিম্মির নিঃশর্ত মুক্তির প্রস্তাব পাস হলো। প্রস্তাবটি যত শিগগির সম্ভব বাস্তবায়ন করতে হবে। এক্ষেত্রে কোনো প্রকার ব্যত্যয় হলে তা হবে ক্ষমার অযোগ্য।’

গাজার শাসকগোষ্ঠী হামাস গত ৭ অক্টোবর ইসরায়েলে নজিরবিহীন হামলা চালানোর পর সেদিনই পাল্টা হামলা শুরু করে ইসরায়েলি বাহিনী। গাজায় তাদের হামলায় ৩২ হাজারের বেশি ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন।

কয়েক মাস ধরে ইসরায়েলের চালানো হামলায় গাজা উপত্যকাজুড়ে তৈরি হয়েছে ভয়ানক এক মানবিক বিপর্যয়। বেসামরিক মানুষের ওপর গণহত্যার অভিযোগে বিশ্বজুড়ে রাজপথে বিক্ষোভ প্রদর্শন করে লাখ লাখ মানুষ। এক পর্যায়ে পশ্চিমা মিত্রদের সঙ্গেও ইসরায়েলের সম্পর্কে কিছুটা ছন্দপতন ঘটে। সম্প্রতি ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত ২৭টি দেশের নেতারা একটি যৌথ বিবৃতিতে গাজায় অবিলম্বে ‘মানবিক বিরতির’ আহবান জানান।

Related posts

এক ভুলেই কপাল পুড়ল মাহিন্দা রাজাপক্ষের

razzak

দেশ ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত্যু আরো বেড়েছে, কমেছে শনাক্ত

razzak

ফাইজারের ১০ লাখ ডোজ টিকা আসছে আজ

razzak

Leave a Comment

Translate »