আন্তর্জাতিক এই মাত্র এই মাত্র পাওয়া খেলাধুলা জাতীয় বাংলাদেশ ব্রেকিং ব্রেকিং নিউজ

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ: নেদারল্যান্ডসকে হারিয়ে সুপার এইটের পথে বাংলাদেশ

বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) নেদারল্যান্ডসকে ২৫ রানে হারিয়েছে বাংলাদেশ। এই জয়ে সুপার এইটের পথে টাইগাররা। ‘ডি’ গ্রুপ থেকে ইতোমধ্যেই ছিটকে গেছে শ্রীলঙ্কা। অন্যদিকে এ গ্রুপ থেকে সুপার এইটে কোয়ালিফাই করেছে দক্ষিণ আফ্রিকা।

‘ডি’ গ্রুপে ৬ পয়েন্ট দক্ষিণ আফ্রিকার। ৪ পয়েন্ট নিয়ে এখন দুইয়ে বাংলাদেশ। ২ পয়েন্ট নিয়ে তিনে ডাচরা। শেষ ম্যাচে নেপালের বিপক্ষে খেলবে বাংলাদেশ। সেখানে বাংলাদেশই ফেবারিট। আর নেদারল্যান্ডস খেলবে ১ পয়েন্ট নিয়ে তলানিতে থাকা শ্রীলংকার বিপক্ষে। তাছাড়া রান রেটও কথা বলছে বাংলাদেশের পক্ষে।

বৃহস্পতিবার ওয়েস্ট ইন্ডিজের আর্নোস ভ্যালে গ্রাউন্ডে টস জিতে বাংলাদেশকে ব্যাটিংয়ে পাঠান ডাচ অধিনায়ক স্কট এডওয়ার্ড। ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই চাপে পরে বাংলাদেশ। তবে সাকিব আল হাসানের ফিফটি ও তানজিদ হাসান তামিমের ব্যাটে ভর করে লড়াকু পুঁজি পায় বাংলাদেশ। নির্ধারিত ২০ ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে ১৫৯ রান সংগ্রহ করে টাইগাররা।

এদিন সাকিব আল হাসান ৪৬ বলে ৬৪ রানে অপরাজিত থাকেন। এছাড়া তানজিদ তামিম ২৬ বলে ৩৫ ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ করেন ২১ বলে ২৫ রান। টি-টোয়েন্টিতে আগের ১৯ ইনিংসে কোনো হাফ সেঞ্চুরি ছিল না সাকিবের। তবে এদিন খেললেন অপরাজিত ৬৪ রানের ইনিংস যা তাকে এনে দিয়েছে ম্যাচ সেরার পুরস্কার।

১৬০ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ৩২ রানে ২ উইকেট হারায় নেদারল্যান্ডস। তৃতীয় উইকেট জুটি থেকেই পাল্টা আক্রমণ শুরু করে ডাচরা। ১৪ ওভারের খেলা শেষে নেদারল্যান্ডসের বোর্ডে ১০৪ রান। অর্থাৎ তখন ৩৬ বলে ৫৬ রান দরকার নেদারল্যান্ডসের। যা অনেকটা ভয় ধরিয়ে দিয়েছিলো বাংলাদেশ শিবিরে।

এসময় বোলিংয়ে এসে বাংলাদেশকে স্বস্তি এনে দেন রিশাদ হোসেন। ১৫তম ওভারে দু’টি উইকেট তুলে নেন তিনি। ৪ ওভারে ৩৩ রানের বিনিময়ে এই লেগ স্পিনার নেন ৩ উইকেট। এরপর টাইগার বোলারদের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে ২৫ রানে জয় পায় বাংলাদেশ।

বলা যায় রিশাদের ওই ওভারই ম্যাচ ঘুরিয়ে দিয়েছে। বাকি কাজটুকু করেছেন বাংলাদেশের অন্যান্য বোলাররা। সবার আগে নাম আসবে মোস্তাফিজের। যাঁর ৪ ওভার থেকে ডাচ ব্যাটসম্যানরা নিতে পেরেছেন মাত্র ১২ রান। এদিন ২টি উইকেট নিয়েছেন পেসার তাসকিন আহমেদ। একটি করে উইকেট নেন মোস্তাফিজ, মাহমুদউল্লাহ ও তানজিম।

নেদারল্যান্ডসকে হারিয়ে সুপার এইট যাওয়া বাংলাদেশের জন্য এখন সময়ের অপেক্ষা বলা যায়। আগামী ১৬ জুন (বাংলাদেশে ১৭ জুন) নেপালের বিপক্ষে ‘ডি’ গ্রুপে বাংলাদেশের শেষ ম্যাচ। এই বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত বাংলাদেশের যে পারফরম্যান্স, তাতে ওই ম্যাচে টাইগারদের জয়টাকে নিছক আনুষ্ঠানিকতা বলা যেতেই পারে।

Related posts

কামালার ভোটে জিতে গেলেন লিসা!

razzak

ফুলেল শ্রদ্ধায় জাতীয় কবিকে স্মরণ

razzak

মাস্ক পরা ছাড়া বের হলেই জেল-জরিমানা

razzak

Leave a Comment

Translate »